শিরোনাম :
টাঙ্গাইলে ফারুক হত্যা মামলায় সাবেক মেয়র সহিদুরের জামিন নামঞ্জুর ঘাটাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ১০০ শয্যায় উন্নীত করার ঘোষনা সখীপুরে বানিয়ারছিট প্রিমিয়ার লীগের ফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত সখীপুরে শেখ রাসেল স্মৃতি ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন থানায় পুলিশের কেউ টাকা চাইলে কঠোর ব্যবস্থা: ডিএমপি কমিশনার ভাত খাওয়া কমিয়ে অন্যান্য পুষ্টিকর খাবারে গুরুত্ব দেওয়ার তাগিদ কৃষিমন্ত্রীর সখীপুরে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর কর্মীর ওপর হামলার ঘটনায় মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সভা সখীপুরে সারাদেশে সাম্প্রদায়িক হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ উঠে যাচ্ছে রাস্তার কার্পেটিং! ঠিকাদার বললেন কাজ নিম্নমানের হয়নি সখীপুরে করোনাকালীন প্রনোদনা পেলেন ৩৪৩ নারী
অনুপম শাহজাহান জয়

অনুপম শাহজাহান জয়

সাবেক সংসদ সদস্য, টাঙ্গাইল-৮
নিজের কর্ম, সফলতা, উদ্যোগের মাধ্যমে যারা নতুন প্রজন্মকে অনুপ্রেরণা জোগায় তেমনই মানুষদের নিয়ে আমাদের এই আয়োজন। যেখানে নতুনদের সঙ্গে নিজের অভিজ্ঞতা ও পরামর্শ ভাগাভাগি করেন এই প্রজন্মের প্রতিনিধিরা।

আমাদের এবারের দশে ১০-এর মুখোমুখি রাজনীতিবিদ টাঙ্গাইল-৮ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য অনুপম শাহজাহান জয়।

যিনি একজন তরুণ রাজনীতিবিদ হিসেবে এর মধ্যে বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছেন।

লিখেছেন সৈয়দ তাওসিফ মোনাওয়ার
১জন মানুষ, যাকে অনুপ্রেরণা হিসেবে দেখেন

অনুপমের অনুপ্রেরণা তাঁর বাবা প্রয়াত সংসদ সদস্য কৃষিবিদ শওকত মোমেন শাহজাহান। ছোটবেলা থেকেই তিনি বাবাকে দেখতেন মানুষের পাশে থাকতে, সাহায্যে এগিয়ে যেতে। মানুষের জীবনযাত্রার উন্নয়ন ও শিক্ষিত হওয়ার ব্যাপারেও উৎসাহ জোগাতেন তাঁর বাবা।

অনুপম দেখতেন, একজন রাজনীতিবিদ কীভাবে মানুষের সাথে নিবিড়ভাবে মিশতে পারেন। বাবার কাছ থেকে পাওয়া সে অনুপ্রেরণা থেকেই রাজনীতিতে এসেছেন তিনি। বাবাই তাঁর আদর্শ।

২টি পছন্দের পেশা, যা হয়তো রাজনীতিতে না এলে বেছে নিতেন

রাজনীতিতে মন দেওয়ার আগে অনুপম ব্যবসা করতেন। শখের বশে নিজস্ব জমিতে বিভিন্ন ফলফলাদি চাষ করতেন। এখনো অনেকগুলো আম বাগান আছে, এছাড়াও অন্যান্য ফলের চাষ করছেন। রাজনীতিকে পেশা হিসেবে বেছে না নিলে ব্যবসা কিংবা কৃষিকাজে মন দিতেন।

৩টি কারণ যেজন্য নিজেকে ভালো মানুষ মনে করেন

একজন ভালো মানুষের গুণ হলো অন্যের উপকার করা। তা করতে না পারলেও অন্যের ক্ষতি না করা। সবসময় মানুষের পাশে থাকা, বিপদে আপদে তাদেরকে সহযোগিতা করা। অনুপম মনে করেন এই গুণগুলো তাঁর মাঝে আছে। একজন রাজনীতিবিদ হিসেবে তিনি চান তৃণমূলের মানুষের পাশে থাকতে। তাদের নেতা হিসেবে নেতৃত্ব দেওয়ার জন্য নয়, সুখ-দুঃখের সাথি হয়ে পাশে থাকাটাই তাঁর উদ্দেশ্য, জানান তিনি। ‘এসব ভাবনা লালন করি, তাই নিজেকে ভালো মানুষ মনে করি,’ বললেন অনুপম।

৪টি অভ্যাস যা বদলাতে চান

লাইফস্টাইল বদলাতে হবে। প্রতিদিনকার কাজগুলো, যেমন—ঘুম, খাওয়া, এগুলো সময়মতো করা হয় না। অনিয়ম করে দিন কাটে। এই অভ্যাস পরিবর্তন করতে চান। এছাড়া মোবাইল ফোনে ও সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেক সময় ব্যয় হয়, সেটার পরিবর্তে তিনি মানুষের সাথে আরও বেশি সরাসরি মিশতে চান। পাশাপাশি নিজের সবগুলোকে কাজকেই নিয়মতান্ত্রিকতার মধ্যে নিয়ে আসবেন।

৫টি উল্লেখযোগ্য নেতৃত্বগুণ, যার সমন্বয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশ

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বের মাধ্যমে দেশে উন্নয়নের অগ্রগতি অতুলনীয়। তিনি দেশ ও দশের উপকারের জন্য কাজ করেছেন। তাঁর নেতৃত্বে নিজস্ব অর্থে পদ্মা সেতু তৈরি হচ্ছে। মহাকাশে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট প্রেরণ করা হয়েছে। এছাড়াও দেশের অবকাঠামোগত পরিবর্তন, যেমন—রাস্তাঘাট, ফ্লাইওভার, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, বন্দরসহ বিভিন্নক্ষেত্রে আধুনিকায়ন হচ্ছে। এছাড়া দেশের অর্থনৈতিক ও আর্থ-সামাজিক উন্নতি হচ্ছে। এখনকার তরুণ রাজনীতিবিদ, সংসদ সদস্য, মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ব্যবহার করেও জনগণের সাথে সম্পৃক্ত হচ্ছেন। এসব নেতৃত্বগুণই এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশকে, এমনটাই মনে করেন অনুপম শাহজাহান জয়।

৬জন প্রিয় রাজনীতিবিদ, যাদেরকে অনুকরণ নয়, অনুসরণ করেন

সবার প্রথমে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। বাঙালি জাতির ভাগ্যাকাশে যখন দুর্যোগ দেখা দিয়েছিল, তখন তিনি পুরো জাতিকে এক করেছিলেন। পুরো বিশ্বেই তিনি অনন্য উদাহরণ। এছাড়াও নেতৃত্বের জন্য নেলসন ম্যান্ডেলা, মহাত্মা গান্ধী, আব্রাহাম লিংকন, নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু ও বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে অনুসরণ করতে চান।

৭ টি কাজ যা অবসরে করতে পছন্দ করেন

প্রিয় কাজের মধ্যে প্রথমেই আছে সিনেমা দেখার অভ্যাস। পরিবারের সবাইকে নিয়ে সিনেমা দেখেন অনুপম। আরও একটি প্রিয় কাজ হলো খেলা দেখা। প্রিয় খেলা ক্রিকেট, তাই ক্রিকেটের বিভিন্ন টুর্নামেন্ট দেখতে ভালোবাসেন। আরও একটি পছন্দের কাজ হলো যেকোনো পুরনো জিনিসকে নতুন করে সাজানো, অর্থাত্ রিসাইক্লিং। নিজের ঘর নিজেই গোছাতে পছন্দ করেন। সুযোগ পেলেই মানুষকে যেখানে সেখানে ময়লা না ফেলার অনুরোধ করেন তিনি। সখিপুরের বাড়িতে তিনি প্রচুর গাছ লাগিয়েছেন। যেগুলো সচরাচর পাওয়া যায় না, যেমন—আপেল, মাল্টা, এসব গাছের চারা সংগ্রহ করেন।

৮টি পরামর্শ আগামীর তরুণদের জন্য

অনুপম এককথায় বললেন, ‘দেশকে ভালোবাসতে হবে। আটটি পরামর্শ দিতে বললে এই কথাই আটবার বলব। দেশকে ভালোবাসলে সবকিছুই ভালো হবে। রাষ্ট্রের প্রতিটা সম্পদ রক্ষণাবেক্ষণ করতে হবে, নিজের বলে মনে করতে হবে। দেশপ্রেম থাকলে দেশকে এগিয়ে নেওয়া খুব সহজ।’

৯টি উন্নয়নমূলক কাজ, যার মাধ্যমে ছুঁতে পেরেছেন এই প্রজন্মকে

‘নিজের কাজ নিজে করি, অন্যকেও এ বিষয়ে উত্সাহ দিই। সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে, যেকোনো সমস্যায় মানুষকে সাহায্য করতে হবে। তরুণদেরকে সবসময় এ কথাগুলো বলি,’ বললেন অনুপম। তিনি বলেন, ‘তরুণদের আছে সাহস আর শক্তি, সেটাকে কাজে লাগাতে হবে। প্রবীণদের আছে অভিজ্ঞতা, সেটাও গ্রহণ করতে হবে।’ এছাড়া মাদকবিরোধী বিভিন্ন কর্মসূচিতে সোচ্চার আছেন তিনি। অনুপম বলেন, ‘আমি সবাইকে সবসময় বলি দেশকে ভালোবাসতে হবে। দেশের প্রতি ভালোবাসাই সবকিছুর মূলে। আমার বিশ্বাস, আমি এভাবেই এই প্রজন্মকে ছুঁতে পারব।’

১০টি ভবিষ্যত্ পরিকল্পনা, যা বাস্তবায়নের স্বপ্ন দেখেন

ব্যক্তিগতভাবে অনুপম শাহজাহান জয়ের পরিকল্পনা হলো নিজের এলাকাকে মাদকমুক্ত রাখবেন, পাশাপাশি চাঁদাবাজি কিংবা ইভটিজিংয়ের মতো অপরাধ থাকবে না। এছাড়া এলাকার শিক্ষার হার বাড়ানো, উন্নত শহরের আদলে শহরকে সাজানোর পরিকল্পনা ভাবেন তিনি। অনুপম বললেন, ‘বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে মানসম্মত পাঠদান করা হবে। রাস্তাঘাট উন্নত থাকবে। মানুষের জন্য বিনোদন কেন্দ্র বা বেড়াতে যাওয়ার জায়গা থাকবে। রাস্তার দুই পাশে সুন্দর ফুটপাত হবে, কোথাও কোনো ময়লা-আবর্জনা থাকবে না। মানসম্মত পরিবহন ব্যবস্থা, মানুষের সঠিক কর্মসংস্থান তৈরি হবে। আগে বাংলাদেশের কোনো ভিশন ছিল না, বর্তমান সরকার সেই ভিশন তৈরি করেছে।’ বাংলাদেশ এগিয়ে যাবেই বলে বিশ্বাস করেন সাবেক তরুণ এই সংসদ সদস্য।

তথ্যসূত্রঃ দৈনিক ইত্তেফাক

Please Share This Post in Your Social Media




প্রধান কার্যালয়ঃ স্কুল মার্কেট,২য় তলা, কচুয়া বাজার,সখীপুর, টাঙ্গাইল। মোবাইলঃ 01518301289; 01708067997 ইমেইলঃ Kachuaonlinenews@gmail.com ©TangailNews24 Is A Part Of KachuaOnlineNews© © All rights reserved © 2021 Tangail News
Design BY NewsTheme