নাগরপুরে ডাকাত আতঙ্কে মসজিদে মাইকিং! নির্ঘুম রাত কাটে এলাকাবাসীর

নাগরপুরে ডাকাত আতঙ্কে মসজিদে মাইকিং! নির্ঘুম রাত কাটে এলাকাবাসীর

নাগরপুর(টাঙ্গাইল)প্রতিনিধি:

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ডাকাত আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ায় গোটা উপজেলায় নিঘুর্ম রাত কাটে মানুষের। ডাকাত আতঙ্কে জানমাল রক্ষা করতে রাত জেগে পাহারা দেয় এলাকাবাসী। রাতে বিদ্যুৎ না থাকায় জনগণের সন্দেহ আরো বেড়ে যায়। রোববার রাতে উপজেলার মামুদনগর ইউনিয়নের বাড়ীগ্রামে ডাকাত পড়েছে বলে স্থানীয় ইউপি সদস্য প্রথমে মসজিদে মাইকিং করে জনগণকে সর্তক করে। এ খবরটি মুহুর্তের মধ্যে গোটা উপজেলায় ছড়িয়ে পড়লে মসজিদে মসজিদে মাইকিং করা হয়।

এতে জনমনে ডাকাত আতঙ্ক বিরাজ করে। খবর পেয়ে নাগরপুর থানা পুলিশ বাড়ীগ্রাম এলাকাসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে টহল জোড়দার করে। মামুদ নগর ইউপি চেয়ারম্যান মো. আনোয়ার হোসেন জানান, আমার ইউনিয়নের বাড়ীগ্রামে ডাকাত পড়েছে এ খবরের সূত্রপাত হয়।

খবরটি আমার ইউপি সদস্য আনোয়ার হোসেন প্রথমে মসজিদে মাইকিং করেন। পর্যায়ক্রমে কলমাইদ, শুনশি, বেলতৈল, মেঘনা, চারাবাগ, পংবাইজোড়া ও বেটুয়াজানী গ্রামের মসজিদে মাইকিং করে ডাকাতের বিষয়টি প্রচার করা হয়। এর পর নাগরপুর সদর সহ গোটা উপজেলা জুড়ে ডাকাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে এমনটা প্রচারে মাইকিং করা হয়।

মামুদনগর ৯নং ওয়ার্ড সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, পাবনা ও সিরাজগঞ্জ থেকে ৫/৬ জন অপরিচিত লোক বাড়ীগ্রাম তে-রাস্তার মোড়ে আসেন। সেখানে তারা চা পান করেন আর ফোনে কথা বলতে থাকেন। তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক বলে মনে হয়। পরে তাদের কে সেখানে আর দেখতে না পেয়ে মসজিদে মাইকিং করি সর্তক হওয়ার জন্য।

এ বিষয়ে নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সরকার আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ডাকাতের খবরটি নিছক গুজব ছাড়া আর কিছুই না। রাতে খবর পেয়ে ৪/৫টি টিম ভোর ৫টা পর্যন্ত টহলে ছিল। কোথাও কোন অপ্রিতিকর ঘটনা ঘটে নাই। এক শ্রেণীর মানুষ ভুয়া এই গুজবটি মাইকিং করে জনগণকে আতংকিত করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media




প্রধান কার্যালয়ঃ স্কুল মার্কেট,২য় তলা, কচুয়া বাজার,সখীপুর, টাঙ্গাইল। মোবাইলঃ 01518301289; 01708067997 ইমেইলঃ Kachuaonlinenews@gmail.com ©TangailNews24 Is A Part Of KachuaOnlineNews© © All rights reserved © 2021 Tangail News
Design BY NewsTheme