টাঙ্গাইলে রাস্তার সরকারী গাছ কাটায় ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন

টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী উপজেলার বলিভদ্র ইউনিয়নের সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির রাস্তার দু’পাশের সরকারী গাছ অবৈধভাবে কাটার অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মানববন্ধন কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে

রোববার (২ মে) বিকালে বলিভদ্র ইউনিয়নবাসীর আয়োজনে ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এ মানববন্ধন কর্মীসূচি অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধন কর্মীসূচিতে ইউনিয়নের সুশীল সমাজ ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার লোক অংশ নেন।


মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা হাছেন আলী, যুবলীগ নেতা ফারুক হোসেন, রেজাউল, ব্যবসায়ী এমদাদুল, শরাফত আলী প্রমূখ।
বক্তরা বলেন, বলিভদ্র ইউপি চেয়ারম্যান সুরুজ্জামান মিন্টু সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির রাস্তার সরকারী বড় বড় ৮/৯ টি একাশি গাছ অবৈধভাবে কর্তন করেন। বিষয়টি নানাভাবে জানাজানি হলে বেশ কিছু গাছের গুঁড়ি সড়িয়ে ফেলেন।

এলাকাবাসীর মাধ্যমে স্থানীয় প্রশাসন খবর পেয়ে গাছের কিছু গুড়ি জব্দ করেন। তারা বলেন, তিনি এ পরিষদের আসার পর থেকেই বিভিন্ন সময় নানা অজুহাতে গাছ কর্তন শুরু করেন। এছাড়াও হতদরিদ্রদের জন্য বয়স্ক ভাতা কার্ড, বিধাব ভাতা কার্ড, প্রতিবন্ধী কার্ড, বিভিন্ন সময় সরকারের দেয়া বিশেষ উপহার সামগ্রী, বাল্য বিয়েতে সহযোগিতা করা, সরকারের বিভিন্ন কর্মসূচীর কাজে অনিয়ম-দুর্নীতি করে আসছে। এসব কার্যক্রম তিনি সব সময় অব্যাহত রেখেছেন।


তারা বিরুদ্ধে কেউ কোন সময় প্রতিবাদ করার সাহস পান না। এ সময় তারা আরো বলেন, আগামী ৭ দিনের মধ্যে যদি আইনগত ব্যবস্থা না নেওয়া হয় তাহলে আরও কঠোর কর্মসূচীর ঘোষণা দিবে এ ইউনিয়নবাসীর সুশীল সমাজ।

উল্লেখ্য, গত ২৮ এপ্রিল সামাজিক বনায়ন কর্মসূচির রাস্তার দু‘পাশে থাকা সরকারী গাছ প্রশাসনের অনুমতি ছাড়াই কেটে ফেলেন। এনিয়ে শনিবার (১ মে) বিভিন্ন জাতীয়, স্থানীয় দৈনিক পত্রিকায় ও বিভন্ন অনলাইনে সংবাদ প্রকাশিত হয়। এতে করে সারাদেশসহ জেলায় ব্যাপকভাবে অলোড়ন সৃষ্টি হয়।

এ ব্যাপারে স্থানীয়রা প্রতিকার চেয়ে এলাকাবাসীর পক্ষ থেকে অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান সুরুজ্জামান মিন্টুর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যাবস্থা নেওয়ার জন্য ধনবাড়ী উপজেলা প্রশাসন, জেলা প্রশাসক, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা টাঙ্গাইল ও জেলা দুর্নীতি দমন কমিশন টাঙ্গাইল বরাবর লিখিত অভিযোগ প্রদান করেন।