মুশতাকের স্বাভাবিক মৃত্যু হয়েছে, দাবি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের ‘স্বাভাবিক’ মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

মুশতাকের মৃত্যু তদন্তে গঠিত গাজীপুরের জেলা প্রশাসন ও কারা অধিদপ্তরের কমিটির প্রতিবেদনে স্বাভাবিক মৃত্যু হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে দাবি করে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, মুশতাকের মৃত্যু ন্যাচারাল (স্বাভাবিক মৃত্যু)। এর সঙ্গে অন্য কোনো সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি।

এসময় তিনি আরো বলেন, ময়নাতদন্তে যেটা আসছে, সেটাতেও কোনও আঘাতের চিহ্ন তার গায়ে পায়নি। তবে ময়নাতদন্তে প্রাথমিকভাবে ডাক্তাররা যেসব অভিমতগুলো করেছেন, এগুলো কিন্তু লিখিত অভিমত নয়। পোস্টমর্টেমের রিপোর্টটা আসলে আমরা চূড়ান্তভাবে জানতে পারবো।

২৫ ফেব্রুয়ারি গাজীপুরের কাশিমপুর হাইসিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি অবস্থায় লেখক মুশতাক মারা যান। এই মৃত্যু নিয়ে সারা দেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এ ঘটনার প্রতিবাদে বিক্ষোভ করে বামপন্থীসহ বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীরা। তারা এ ঘটনাকে পরিকল্পিত রাষ্ট্রীয় হত্যাকাণ্ড দাবি করেন। দাবি জানান, ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তের।

এদিকে নাগরিক সমাজ গতকালের কর্মসূচিতে আগামী ২৬ মার্চের মধ্যে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের যে দাবি জানিয়েছে, তাতে গুরুত্ব দিতে রাজি নন তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ।
এবিষয়ে নিজ দপ্তরে তথ্যমন্ত্রী দাবি করেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন দেশবাসীকে নিরাপত্তা দেয়ার জন্য। যারা এর বিরোধিতা করছেন, তাদের অবস্থান সব সময়ই সরকারের বিরুদ্ধে।

মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর প্রতিবাদ এবং ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবি ২৬ মার্চের মধ্যে বাস্তবায়ন না হলে কঠোর আন্দোলন’ গড়ে তোলার হুঁশিয়ারি জানিয়েছে আন্দোলনকারীরা।

error: Content is protected !!