অস্ট্রেলিয়ার সাথে ৩৬ রানে অলআউট হওয়ার লজ্জায় ডুবল ভারত

অস্ট্রেলিয়ার সাথে ৩৬ রানে অলআউট হওয়ার লজ্জায় ডুবল ভারত

১১ ব্যাটসম্যানের সবাই দুই অঙ্কে পৌঁছানোর আগেই আউট হয়ে গেছেন, এমনটা এ নিয়ে দ্বিতীয়বার দেখল টেস্ট ক্রিকেট। আগেরটি ৯৬ বছরের পুরোনো রেকর্ড। ১৯২৪ সালে বার্মিংহামে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার ১১ ব্যাটসম্যান আউট হয়েছিলেন এক অঙ্কে। আগের দিন পৃথ্বী শ ৪ রান করে আউট হয়েছিলেন। মায়াঙ্ক আগারওয়াল ৫ রান নিয়ে ও নাইটওয়াচম্যান যশপ্রীত বুমরা ০ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছিলেন। কিন্তু আজ তৃতীয় দিনের দ্বিতীয় ওভারের শেষ বল থেকে ভারতের মড়ক লাগা শুরু।
কাল ১ উইকেটে ৯ রান নিয়ে দিন শেষ করেছিল ভারত, আজ স্কোরবোর্ডে ৬ রান যোগ হতেই ফেরেন বুমরা। ব্যক্তিগত ২ রানে।



স্কোরবোর্ডে আর কোনো রান যোগ না হতেই এরপর ফেরেন চেতেশ্বর পূজারা (০), মায়াঙ্ক আগারওয়াল (৯) ও অজিঙ্কা রাহানে (০)। এক ধাক্কায় ১৫ রানে ৫ উইকেট নেই ভারতের।
ভরসা হবেন কোহলি—এমনটা যাঁরা ভেবেছিলেন, তাঁদের ভাবনার দুয়ারে বাস্তবতার কঠোর আঘাত এল কিছুক্ষণ পর। প্যাট কামিন্সের বলে আউট কোহলি, ভারতের রান তখন ১৯, কোহলি আউট হলেন ৪ রান করে।

তখন হিসাব চলছিল, ভারত না টেস্ট ইতিহাসেই সবচেয়ে কম রানে আউট হয়ে যায়! যে রেকর্ডটি নিউজিল্যান্ডের, ১৯৫৫ সালে অকল্যান্ডের ইংল্যান্ডের হাতে নিউজিল্যান্ড আউট হয়েছিল ২৬ রান করে।



ভারতকে ২৬ রানেই রেখে একে একে ফেরেন ঋদ্ধিমান সাহা (৪) ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন (০)। ২৬ রানে ৮ উইকেট নেই। আর দুই উইকেট পড়ে গেলেই লজ্জার রেকর্ডটাতে নাম লিখিয়ে ফেলে ভারতও—এ-ই তখন জল্পনাকল্পনা। কিন্তু হনুমা বিহারি তা হতে দিলেন না। ৮ রান করে তিনি যখন আউট হচ্ছেন, ভারতের রান ৯ উইকেটে ৩১।
এরপর তো দলকে ৩৬ রানে রেখে প্যাট কামিন্সের বলে কনুইয়ে আঘাত পেয়ে মাঠ ছেড়েছেন মোহাম্মদ শামি (১)। অন্য পাশে উমেশ যাদব তখন ৪ রানে অপরাজিত।

শামি আর খেলা চালিয়ে যেতে পারবেন না, এটা নিশ্চিত হওয়ার পরই ‘টেলিফোন ডিজিট’ স্কোরকার্ডটা পেয়ে গেছে ভারত। টেস্ট ক্রিকেট যে রকম স্কোরকার্ড গত ৯৬ বছরে দেখেনি।

Please Share This Post in Your Social Media




প্রধান কার্যালয়ঃ স্কুল মার্কেট,২য় তলা, কচুয়া বাজার,সখীপুর, টাঙ্গাইল। মোবাইলঃ 01518301289; 01708067997 ইমেইলঃ Kachuaonlinenews@gmail.com ©TangailNews24 Is A Part Of KachuaOnlineNews© © All rights reserved © 2021 Tangail News
Design BY NewsTheme