বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য অবমাননার অভিযোগে মামুনুল হকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহীতার মামলা

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য অবমাননার অভিযোগে মামুনুল হকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহীতার মামলা

বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য অবমাননার অভিযোগে হেফাজতে ইসলামের নেতা মামুনুল হকের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহীতার মামলা করেছে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন। সোমবার সকালে ঢাকার সিএমএম কোর্টে মামলার আবেদন করে বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সভাপতি অ্যাডভোকেট মশিউর মালেক। পরে এ আবেদনের শুনানি হয় বেলা ১১টার দিকে।

মামলার আবেদনে আসামি করা হয়েছে কেবল মামুনুল হককে, যিনি হেফাজতে ইসলামের নতুন কমিটিতে যুগ্ম মহাসচিবের দায়িত্বে আছেন।



মশিউর মালেকের মামলার আর্জিতে দণ্ডবিধির ১২০ (খ)/১৫৩/১২৪ (ক)/ ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, মামুনুল হক এক আলোচনা সভায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার হুমকি দেন, যা দেশ ও সরকারের স্থিতিশীলতাকে হুমকির মুখে ফেলে দিয়েছে।

গত ১৩ নভেম্বর ঢাকার গেণ্ডারিয়ার ধূপখোলার মাঠে তৌহিদী জনতা ঐক্যপরিষদের ব্যানারে এক সমাবেশ থেকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করা হয়।



একই দিনে রাজধানীর বিএমএ অডিটোরিয়ামে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস ঢাকা মহানগরীর উদ্যোগে শানে রিসালাত কনফারেন্সে বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব ও বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মামুনুল হক প্রকাশ্যে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করেন।

এর আগে, বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে ঢাকার সিএমএম কোর্টে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার আবেদন করেছে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ। সংস্থাটির সভাপতি আমিনুল ইসলাম বুলবুল জানিয়েছেন, হেফাজতে ইসলামের আমির জুনাইদ বাবুনগরী, খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হক এবং ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির সৈয়দ ফয়জুল করিমের বিরুদ্ধে সোমবার সকালে ঢাকার মহানগর হাকিম সত্যব্রত শিকদারের আদালতে রাষ্ট্রদ্রোহের প্রথম মামলাটির আবেদন করেন।

বুলবুলের মামলার আর্জিতে দণ্ডবিধির ১২০ (খ) (১)/১২৪ (ক)/ ৫০৫ (ক) ধারায় অভিযোগ আনা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে, ইসলামকে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করে আসামিরা ধর্মের আজগুবি ব্যাখ্যা দিয়ে বিদ্বেষপূর্ণ, কাল্পনিক, উত্তেজনাকর ও উসকানিমূলক বক্তব্য দিচ্ছেন। তারা বাঙালি মুসলমান সমাজের মধ্যে মুক্তিযুদ্ধ, বঙ্গবন্ধু ও সংবিধান সম্পর্কে বিদ্বেষ সৃষ্টি করে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে রাষ্ট্রদ্রোহমূলক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত রয়েছেন।



এদিকে কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৪ কে আজ আদালতে নেয়ার কথা রয়েছে। সেখানে তাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের আবেদন জানাবে কুষ্টিয়া পুলিশ। বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙার প্রতিবাদে আজও সারাদেশে চলছে বিক্ষোভ কর্মসূচি।

সোমবার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউ ও রমনায় মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করার কথা রয়েছে নানা রাজনৈতিক, সামাজিক সংগঠনের। শুক্রবার রাতে কুষ্টিয়া শহরের পাঁচ রাস্তার মোড়ে বঙ্গবন্ধুর নির্মাণাধীন ভাস্কর্য ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে।



পরদিন শনিবার কুষ্টিয়া পৌরসভার সচিব কামাল উদ্দীন বাদী হয়ে কুষ্টিয়া মডেল থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে একটি মামলা করেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত ৪ জনকে গ্রেপ্তার করেছে কুষ্টিয়া থানা পুলিশ।

এসব ঘটনার প্রেক্ষাপটে সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা মো. জিশান মাহমুদ রোববার জুনাইদ বাবুনগরী ও মামুনুল হকের বিরুদ্ধে আরেকটি রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার অনুমতি চেয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেছেন।

Please Share This Post in Your Social Media




প্রধান কার্যালয়ঃ স্কুল মার্কেট,২য় তলা, কচুয়া বাজার,সখীপুর, টাঙ্গাইল। মোবাইলঃ 01518301289; 01708067997 ইমেইলঃ Kachuaonlinenews@gmail.com ©TangailNews24 Is A Part Of KachuaOnlineNews© © All rights reserved © 2021 Tangail News
Design BY NewsTheme