টাঙ্গাইলে যমুনা নদী থেকে ৩ জুয়াড়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ

টাঙ্গাইলের ভূঞাপুরের যমুনা নদী থেকে হাফিজুর খাঁ, ফজল ও সানোয়ার নামে তিন জুয়াড়ীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

রোববার (২৯ নভেম্বর) সকালে উপজেলার যমুনা নদীর বাসুদেবকোল ও গোবিন্দপুর এবং গোপালপুর উপজেলার সোনামুই এলাকা থেকে তাদের লাশ উদ্ধার করা হয়।

এরা হ‌লেন, টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর উপজেলার শাখারিয়া গ্রামের মৃত জমসের আলী খানের ছেলে হাফিজুর রহমান (৩৭), একই জেলার ভূঞাপুর উপজেলার নিকলাপাড়া গ্রামের আব্দুল বারেকের ছেলে ফজল মন্ডল (৩৩) এবং সরিষাবাড়ী উপজেলার পাখিমারা গ্রামের শামছুল হকের ছেলে ছানোয়ার হোসেন ছানু (৪০)।



জুয়ার আসরের আধিপত্য বিস্তার নিয়ে সংঘর্ষের ঘটনায় বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তারা নিখোঁজ হয়।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে সরিষাবাড়ীর চর বাসোরিয়ায় জুয়ার আসর চলছিলো। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এতে আহত হয় বেশ কয়েকজন জুয়াড়ু।
ঘটনার সময় নদীতে ঝাঁপ দেয় হাফিজুর, ফজল ও সানোয়ার। ওই সময় থেকেই তারা নিখোঁজ হয়।
শনিবার দিনভর অভিযান চালিয়ে নিখোঁজদের উদ্ধার করতে ব্যর্থ হয় ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। পরে আজ রোববার সকালে ভূঞাপুর উপজেলার যমুনা নদীর বাসুদেবকোল এলাকা থেকে হাফিজুলের, গোবিন্দপুর এলাকা থেকে ফজলের ও গোপালপুর উপজেলার সোনামুই এলাকা থেকে সানোয়ারের লাশ উদ্ধার করা হয়।



ভুঞাপুর থানার উপপ‌রিদর্শক (এসআই ) লিটন মিয়া জানান, উপজেলার বাসুদেবকোল এলাকার যমুনা নদী থে‌কে হা‌ফিজুর না‌মে একজ‌নের মর‌দেহ উদ্ধার করা হ‌য়ে‌ছে। এছাড়া নি‌খোজ আ‌রো দুইজ‌নের মর‌দেহ পিংনার বাশু‌রিয়া যমুনা নদী থে‌কে উদ্ধার করা হ‌য়ে‌ছে ব‌লে জানা গে‌ছে।
(স্টাফ রিপোর্টার, ঘাটাইল ডট কম)/

error: Content is protected !!