সখীপুরে সাপ দিয়ে বেদে নারীদের চাঁদাবাজি! বিপাকে সাধারণ মানুষ

টাঙ্গাইলের সখীপুরে রাস্তায় রাস্তায় সাপ নিয়ে বেদে সম্প্রদায়ের নারীরা চাঁদা উত্তোলন করছেন। বেশ কয়েকদিন থেকে চলছে এ ধরনের চাঁদাবাজি। এতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেনে উপজেলার ব্যবসায়ী ও সাধারন মানুষ। পৌর শহরের ব্যস্ততম মুখতার ফোয়ারা চত্বর এলাকায় দেখা গেছে এ ধরনের দৃশ্য।



বৃহস্পতিবার বিকেল সখীপুর মুখতার ফুয়ারা চত্বর এলাকায় বেদে সম্প্রদায়ের বিভিন্ন বয়সী নারীদের সাপ নিয়ে চাঁদা তুলতে দেখাযায়। বিভিন্ন শ্রেণি ও পেশার মানুষের কাছে টাকা চাইছেন। এর ফলে ছোট-বড় সব বয়সি মানুষ আতঙ্কিত হয়ে উঠছেন।কাঠের ছোট বাক্সের মধ্য থেকে সাপের মাথা বের করছেন। চমকে উঠছেন পথচারী ও দোকান মালিকরা।



এরপর পথ আগলে দাবি করা হচ্ছে টাকা। চাহিদা মতো টাকা না দিলে ছেলেদের শার্ট আর মেয়েদের ওড়না টেনে ধরা হচ্ছে। ছোট কাঠের বাক্স নিয়ে বেদেদের চাঁদাবাজি নতুন নয়, কিন্তু বর্তমানে তা খুব বেশি দেখা যাচ্ছে পৌর এলাকাতে। অনেক পথচারী সাপের ভয় থেকে বাঁচতে চাঁদা দিতে বাধ্য হচ্ছেন। লোক বুঝে যার থেকে যেমন টাকা পাচ্ছেন, তা আদায় করছেন।



বাজার করতে আসা পথচারি জানান, আমার কাছে বেদে মেয়েরা করে টাকা দাবি করে। আমি না করায় আমাকে বিভিন্ন ভাবে নাজেহাল করার চেষ্টা করলে আমি বাধ্য হই তাদের টাকা দেওয়ার জন্য।তবে এসব বিষয়ে বেদে নারীরা জানান, বেদে সম্প্রদায়ের মানুষ তারা। আয়-উপার্জনের ভিন্ন কোনো পথ তার জানা নেই। তাই সাপ দেখিয়ে টাকা নেয়। প্রতিদিন তাদের যে আয় হয় এ টাকা দিয়েই কোনোভাবে ছেলে ও মেয়েকে নিয়ে সংসার চালান।

(সূত্র-নিউজ টাঙ্গাইল)

error: Content is protected !!