ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী তিথি গ্রেপ্তার

বহিষ্কৃত জবি শিক্ষার্থী তিথি সরকার
সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মুহাম্মদ (সা) সম্পর্কে কটূক্তি করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করার অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কৃত শিক্ষার্থী তিথি সরকারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। গতকাল বুধবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।



সিআইডির এএসপি (মিডিয়া) জিসানুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আজ বৃহস্পতিবার এ বিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানানো হবে।

তিথি সরকার জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী ও ছাত্র অধিকার পরিষদ জবি শাখার দপ্তর সম্পাদক ছিলেন।



এর আগে গত ২৬ অক্টোবর ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাতের অভিযোগে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত আদেশে তিথি সরকারকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ওই আদেশে বলা হয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির শিক্ষার্থী তিথি সরকারকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ইসলাম ধর্মের মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স.) সম্পর্কে কটূক্তি করে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করায় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সাময়িক বহিষ্কার করা হলো।



এরপর গত ৫ নভেম্বর তিথির বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করা হয়। মামলার অভিযোগে বলা হয়, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের ২০১৭-২০১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী তিথি সরকার গত ১৬ অক্টোবর থেকে ২৩ অক্টোবর পর্যন্ত বিভিন্ন সময়ে নিজের ফেসবুক পেজ থেকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও কটূক্তি করেছেন।

error: Content is protected !!