সখীপুরে জনসাধারণের বাঁধার মুখে বিল্ডিং না ভেঙ্গেই ফিরে গেলেন ম্যাজিস্ট্রেট

সখীপুর প্রতিনিধি: সখীপুরে এলাকাবাসী আদালতের আদেশ প্রতিহত করলেন। বনবিভাগের জমিতে তৈরি তিন তলা বিল্ডিং না ভেঙ্গেই চলে গেলেন ম্যাজিস্ট্রেট ও তার সঙ্গীয় ফোর্স। জানাযায়, বাঁধার মুখে আদালতের আদেশে টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলার বহেড়াতৈল রেঞ্জের কচুয়া বিটের অধীনে দাড়িপাকা এলাকায় বনবিভাগের জমিতে নির্মিত তিনতলা বিল্ডিং মঙ্গলবার সকালে ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে র‌্যাব,পুলিশ,বনবিভাগ যৌথভাবে বোলডোজার দিয়ে গুড়িয়ে দিতে যায়।



প্রভাবশালী সরকার দলীয় নেতাদের হস্তক্ষেপে আদালতের আদেশে বনবিভাগের জমির উপর নির্মিত বিল্ডিং গুড়িয়ে না দিয়ে চলে আসে। পরে ৭দিনের সময় দিয়ে প্রশাসনের লোকজন নিয়ে চলে যান।



এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সখীপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার(ভূমি) হামীম তাবাসসুম প্রভা বলেন,বনবিভাগের জায়গায় অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের জন্য ডিসি স্যার আমাকে ম্যাজিস্ট্রেট হিসাবে দায়িত্ব পালন করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেন এবং আমি যথারীতি উক্ত স্থানে গিয়ে উচ্ছেদ কার্যক্রম শুরু করার সময় শতেক খানি লোক সড়কে বসে পড়ে আমাদের কাজে বাধা প্রদান করেন।



এসময় উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক নজরুল ইসলাম খানসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ,অঙ্গসংগঠনের লোকজনও প্রচণ্ডভাবে বাঁধা প্রদান করেন। পরে আমরা উচ্ছেদ অভিযান স্থগিত করে চলে আসি।
ভুক্তভোগী মো.মোসা মিয়া বলেন, এই জমির সাফ কওলা দলিল রয়েছে।
সাজ্জাত লতিফ
সখীপুর প্রতিনিধি
১০.১১.২০

error: Content is protected !!