শীতের শুরুতেই করোনা শনাক্তের পারদ আবার ঊর্ধ্বমুখী

একটু একটু করে পড়তে শুরু করেছে শীত। কিন্তু শীত আসতে না আসতেই দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্তের হার ক্রমেই বেড়ে চলেছে। এক সপ্তাহ আগে গত ৪ নভেম্বর দেশব্যাপী ১১৪টি পরীক্ষাগারে ১৩ হাজার ৯১৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ৫১৭ জনের শরীরে সংক্রমণ শনাক্ত হয়।



শনাক্তের হার ছিল ১০ দশমিক ৯ শতাংশ।

এক সপ্তাহের ব্যবধানে মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) ১১৫টি পরীক্ষাগারে ১৩ হাজার ৫২০টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনায় আক্রান্ত নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১ হাজার ৬৯৯জন। এক্ষেত্রে শনাক্তের হার ১২ দশমিক ৫৭ শতাংশ। এক সপ্তাহের ব্যবধানের শনাক্তের হার এক দশমিক ৬৭ শতাংশ বেড়েছে।

এদিন বিকেলে স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।

স্বাস্থ্য ও রোগতত্ত্ব বিশেষজ্ঞরা গত কয়েকদিন ধরে রাজধানীসহ সারাদেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমন হার বেড়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছিলেন।

ঘরের বাইরে মাস্ক না পরা, ঘন ঘন সাবান বা স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিস্কার না করা ইত্যাদি কারণে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছেন তারা।

উল্লেখ্য, ইউরোপে করোনার সেকেন্ড ওয়েভ চলছে। এতে হাজার হাজার মানুষ আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুও হচ্ছে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক।

বাংলাদেশে নিউ নরমাল লাইফে মানুষ সরকারের বিধি-নিষেধ উপেক্ষা করে রাস্তায় অবাধে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ফলে আক্রান্তের হার বাড়ছে বলে মনে করা হচ্ছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৬ জন মারা গেছেন।

তাদের মধ্যে পুরুষ ১৫ জন ও নারী একজন। এ নিয়ে বাংলাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬ হাজার ১০৮ জনে।
(জাগো নিউজ)

error: Content is protected !!