টাঙ্গাইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যাকারীদের ফাসির দাবিতে মানববন্ধন”

টাঙ্গাইলের বাসাইলে বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ(৭০)কে সালিশ বৈঠকে ডেকে নিয়েকে নৃশংস ভাবে পিটিয়ে হত্যাকারীদের ফাসি ও হত্যায় সহযোগীদের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবিতে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।



বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান মোঃ সোলাইমান মিয়ার নেতৃত্বে আজ সোমবার (২নভেম্বর) সকালে এই মানববন্ধন-এর আয়োজন করে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদ। এতে কেন্দ্রীয় কমিটির নেতৃবৃন্দের সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন টাঙ্গাইলের মুক্তিযোদ্ধার সন্তানবৃন্দ।



মানববন্ধন কর্মসূচি থেকে বীর মুক্তিযোদ্ধা হত্যাকারী অভিযুক্ত আবু খাঁ, পারভেজ, পাভেল গংদের দ্রুত গ্রেফতার ও ফাসি কার্যকরের দাবি জানানো হয়।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত বক্তারা বলেন, ইদানিং মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের উপর হামলা ও নির্যাতন বেড়ে যাওয়ায় মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের দীর্ঘদিনের দাবি “মুক্তিযোদ্ধা পরিবার সুরক্ষা আইন” প্রণয়ন জরুরি হয়ে পড়েছে। তারা রাষ্ট্রের কাছে এই আইন প্রণয়নের জোর দাবী জানান।



এ-সময় বক্তব্য প্রদান করেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান মোঃ সোলাইমান মিয়া, সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান সজীব সরকার, ভাইস চেয়ারম্যান শেখ শাহারুল, প্রিন্স জার্নালিস্ট, মহাসচিব মোঃ শফিকুল ইসলাম বাবুসহ টাঙ্গাইলের মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের পক্ষে বিপ্লব সবুর খান, সাজ্জাদ খোশনবীশ, অধ্যাপক রেজাউল করিম, আতিকুল ইসলাম, জিয়াদ সিদ্দিক, নাহিদ খান, শহীদুল ইসলাম, আব্দুল আলীম, আসাদুজ্জামান শোয়েব, আপেল খান প্রমুখ।



মানববন্ধন অনুষ্ঠান শেষে কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান মোঃ সোলাইমান মিয়ার নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান সংসদের একটি প্রতিদিন দল টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায়-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে মামলার বিষয়ে খোঁজ খবর নেন এবং হত্যা কান্ডের সঙ্গে জড়িত সকল আসামিদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান।

error: Content is protected !!