বিএনপির রাজনীতি শুধু ফেসবুকের মধ্যেই সীমাবদ্ধ

রাজপথের রাজনীতিতে বিএনপিকে বাতি জ্বালিয়েও খুঁজে পাওয়া যায় না বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, বিএনপির রাজনীতি এখন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও গণমাধ্যমেই সীমাবদ্ধ।

শনিবার সকালে রাজধানীর বাসা থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নোয়াখালীর চৌমোহনী পৌরসভায় নতুন পার্ক ও টার্মিনালের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ সব কথা বলেন তিনি।



ওবায়দুল কাদের বলেন, শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে বিষোদগার করা এখন বিএনপির রাজনীতির রোজনামচার অংশ। প্রধানমন্ত্রীর উন্নয়ন ও অর্জনের কথা বললেই বিএনপির গাত্রদাহ হয়। আওয়ামী লীগ কখনোই বিএনপির বিরুদ্ধে নয়। তবে তাদের নেতিবাচক ও অপরাজনীতির বিরুদ্ধে আওয়ামী লীগ।

তিনি বলেন, ৭৫-এর খুনি ও খুনের মদদদাতা, একুশে আগস্টের গ্রেনেড হামলার মাস্টারমাইন্ড ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে সঙ্গে নিয়ে বিএনপি দেশের রাজনীতিকে বিষাক্ত করে তুলছে।



নোয়াখালীর সাম্প্রতিক কিছু ঘটনার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, গুটিকয়েক অপরাধীর জন্য সরকারের অর্জন ম্লান হতে পারে না। এ ধরণের ঘটনা যেন না ঘটে। শেখ হাসিনা সরকার যেকোনও অন্যায়-অপরাধের বিরুদ্ধে অত্যন্ত কঠোর। দলীয় পরিচয়ে কেউ রেহাই পাবে না।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আরো বলেন, বিএনপি মহাসচিব সংসদ সদস্য নির্বাচিত হলেও তাকে সংসদে যেতে দেয়া হয়নি। তিনি আসলে পুতুল নাচের পুতুল। বিএনপি দেউলিয়া হয়ে গেছে।



দেশের গণতান্ত্রকে শক্তিশালী করতে ইতিবাচক রাজনীতির ধারায় ফিরে আসতে বিএনপিকে আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

error: Content is protected !!