ফিলিপাইনে মোরগের আক্রমণে পুলিশ কর্মকর্তা নিহত! ৭ মুরগি গ্রেপ্তার

নর্দান সামার প্রদেশে অবাধ মোরগের লড়াইয়ে অভিযান চালাতে গেলে একটি লড়াইয়ের মোরগ আক্রমণ করলে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয়ভাবে মুরগিদের পায়ে গাফ নামে স্টিলের ধারালো ফলা লাগানো থাকে। তারই আঘাতে মারা গেছেন লেফট্যান্যান্ট ক্রিস্টিন বলক। -বিবিসি, এএফপি, পিএনএ, গ্লোবাল মনিটর



এই ব্লেডের কারণে কেটে যায় তার বাম উরু। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হয় তার ফিমোরাল শিরা। তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে দেশটিতে বর্তমানে মোরগের লড়াই নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। প্রাদেশিক পুলিশ প্রধান কর্নেল আরনেল আপুদ বলেছেন, এই দুর্ঘটনা ছিলো দূর্ভাগ্যজনক। তিনি বলেন, এই ধরণের দূর্ভাগ্যের ব্যাখ্যা দেয়া যায় না। তিনি বলেন, আমাকে এটা জানানোর পর আমি বিশ্বাস করিনি। আমার ২৫ বছরের ক্যারিয়ারে এই ধরণের ঘটনা প্রথমবার ঘটলো।



নিহতের পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন পুলিশ প্রধান। এই ঘটনায় ৩ ব্যক্তি ও ৭টি মুরগিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে দুই সেট গাফ ও ৫৫০ ফিলিপেনো পেসো। ফিলিপাইনে মোরগের লড়াই তুমুল জনপ্রিয়। দুই পাখির লড়াইয়ে সেখানে বিপুল অর্থের জুয়াও খেলাও চলে।

(দৈনিক ইনকিলাব)

error: Content is protected !!