পুরস্কার’ পেলেন পুকুরে ফেলে দেওয়া সেই অধ্যক্ষ

পুকুরে ফেলে দেওয়া রাজশাহী পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিন আহম্মেদকে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরিচালক (কারিকুলাম) নিয়োগ দিয়েছে সরকার। তার এই নিয়োগকে ‘পুরস্কার’ হিসেবেই দেখছে পলিটেকনিক ও কারিগরি শিক্ষাখাতের সংশ্লিষ্টরা।



শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদরাসা শিক্ষা বিভাগ গত ১৪ অক্টোবর কারিগরি শিক্ষা অধিদপ্তরাধীন প্রকৌশলী ফরিদ উদ্দিনকে পুনরাদেশ না দেওয়া পর্যন্ত প্রেষণে কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের পরিচালক নিয়োগ দেয়। আদেশে বলা হয়, যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমোদনক্রমে এই আদেশ জারি করা হলো। এ আদেশ অবিলম্বে কার্যকর হবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে। পরে গত ১৫ অক্টোবর কারিগরি শিক্ষা বোর্ড ফরিদ উদ্দিনের যোগদানপত্র গ্রহণ ও পদায়ন করে আদেশ জারি করে।



গত বছরের ২ নভেম্বর দুপুরে রাজশাহী পলিটেকনিকের অধ্যক্ষ ফরিদ উদ্দিনকে দুপুরে নিজ ক্যাম্পাসে টেনে-হিঁচড়ে পুকুরের পানিতে নিয়ে ফেলে দেওয়া হয়। এ ঘটনায় দেশজুড়ে তোলপাড় হয়।



ওই পলিটেকনিক শাখা ছাত্রলীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক কামাল হোসেন সৌরভসহ কয়েকজনের বিরুদ্ধে অধ্যক্ষকে পুকুরে ফেলে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। ওই ঘটনায় অধ্যক্ষের দায়ের করা মামলায় পুলিশ ভিডিও ফুটেজ দেখে জড়িত অন্তত ২৩ জনকে গ্রেফতার করে। পরে চার শিক্ষার্থীকে বহিষ্কারসহ ১৬ ছাত্রের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছিল।



এদিকে, ফরিদ উদ্দিনকে বোর্ডের পরিচালক পদে পদায়ন করায় অভিনন্দন জানিয়েছে পলিটেকনিকের সংশ্লিষ্টরা। ফরিদ উদ্দিন এরআগে রংপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের উপাধ্যক্ষ ছিলেন।



‘পলিটেকনিক বন্ধুমহল’ নামে ফেসবুক গ্রুপে সরকারের এই সিদ্ধান্তকে অভিনন্দন জানিয়ে ‘পুরস্কার’ বলে স্ট্যাটাস দিয়েছে।

error: Content is protected !!