টাঙ্গাইলেই ডাকাতি হওয়া প্রাইভেটকার নাটোরে উদ্ধারের ঘটনায় আটক ০৩

নাটোরের বড়াইগ্রামে টাঙ্গাইল মধুপুর থেকে ডাকাতি হওয়া প্রাইভেটকার উদ্ধারসহ তিনজনকে আটক করেছে বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ। শনিবার (২৪ অক্টোবর) সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাগডোব গ্রামস্থ মন্দিরের সামনে জোনাইল টু লক্ষীকোল গামী পাকা রাস্তার উপর থেকে তাদের আটক করা হয়।



থানা সূত্রে জানাযায়, অফিসার ইনচার্জ বড়াইগ্রাম থানা নাটোর কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে সংবাদ পান যে গত শুক্রবার (২৩ অক্টোবর) রাত ৯টার দিকে টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানা থেকে একটি প্রাইভেটকার (ঢাকা মেট্রো -গ-২৩-০১৬৪) ঐ গাড়ির ড্রাইভার মো: নয়নকে গজারি বনের ভিতরে ৬ জন ডাকাত মারপিট করে বেঁধে রেখে প্রাইভেটকারটি ছিনতাই করে নিয়ে গেছে।



সে শেরপুর জেলার নকশা থানাধীন চক পাঠাকাট গ্রামের মো: আকরাম হোসেন এর ছেলে।

এমন সংবাদ নাটোর কন্ট্রোল রুমের মাধ্যমে অবগত হয় বড়াইগ্রাম থানা পুলিশ এবং দ্রুত সময়ের মধ্যে নাটোরের পুলিশ সুপার জনাব লিটন কুমার সাহা, পিপিএম -বার এর সরাসরি তত্ত্বাবধানে অফিসার ইনচার্জ মোঃ আনোয়ারুল ইসলামের নেতৃত্বে মাঠে নামে” টিম বড়াইগ্রাম”।



পরে শনিবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে বাগডোব গ্রামস্থ মন্দিরের সামনে জোনাইল টু লক্ষীকোল গামী পাকা রাস্তার উপর থেকে নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানাধীন খোদ্দ কাছুটিয়া গ্রামের খলিলুর রহমানের ছেলে মোঃ ফজলুর রহমান (২৮), মো: কাছন এর ছেলে মোঃ উজ্জল হোসেন (১৮) এবং মো: তসলিম এর ছেলে মোঃ আমিরুল ইসলাম (২৭) কে প্রাইভেট কারসহ আটক করে পুলিশ।



এ বিষয়ে বড়াইগ্রাম থানা অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, কন্টোল রুমের মাধ্যমে সংবাদ পাই এবং এসপি স্যারের সার্বিক তত্ববধানে আমরা দ্রুত সময়ের মধ্যে লুন্ঠিত গাড়ীটি উদ্ধারসহ অভিযুক্তদের আটক করতে সক্ষম হয়েছি।



এই সংক্রান্তে টাঙ্গাইল জেলার মধুপুর থানায় ডাকাতি মামলা রুজু করা হয়েছে।

(ঘাটাইল ডটকম)

error: Content is protected !!