আকবরকে পালাতে সহায়তা করায় এসআই হাসান বরখাস্ত

সিলেটে পুলিশ ফাঁড়িতে রায়হানের মৃত্যুর ঘটনার আলামত নষ্ট ও তাকে হত্যায় অভিযুক্ত এসআই আকবরকে পালাতে সহায়তা করার অভিযোগে বন্দর বাজার ফাঁড়ির এসআই হাসান উদ্দিনকে বরখাস্ত করা হয়েছে। বুধবার সন্ধ্যায় সিলেট মহানগর পুলিশের মুখপাত্র অতিরিক্ত উপ কমিশনার বি এম আশরাফ উল্লাহ তাহের এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।



তিনি জানান, এসআই আকবরের পালানোর পেছনে কোনো পুলিশ সদস্যের সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা তা তদন্তে পুলিশ সদর দপ্তরের তিন সদস্যের একটি কমিটি করা হয়। তাদের তদন্তে এসআই হাসানের সম্পৃক্ততার প্রমান পাওয়া যায় বলে তাকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তিনি এখন মহানগর পুলিশের হেফাজতে রয়েছেন।



গত ১১ অক্টোবর ভোরে সিলেট নগরীর আখালিয়ার এলাকার বাসিন্দা রায়হান আহমদকে বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়িতে নেয়া হয়। পরে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় ১১ অক্টোবর রাতে নিহত রায়হানের স্ত্রী তাহমিনা আক্তার বাদী হয়ে কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা করেন।



মহানগর পুলিশের একটি অনুসন্ধান কমিটি তদন্ত করে ১২ অক্টোবর বন্দরবাজার ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই আকবর হোসেন ভূঞাসহ চারজনকে সাময়িক বরখাস্ত ও তিনজনকে প্রত্যাহার করে। ওই দিন থেকে আকবর পলাতক আছেন। এ নিয়ে বন্দরবাজার ফাঁড়িতে নির্যাতনে রায়হানের মৃত্যুর ঘটনায় পাঁচজনকে সাময়িক বরখাস্ত করা হলো।

error: Content is protected !!