জঙ্গি সদস্য সন্দেহে দুই ইমামকে গ্রেফতার করেছে র‍্যাব

গাজীপুর থেকে দুই ইমামকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব। তাদের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ বাংলাদেশের (হুজি) সক্রিয় সদস্য বলে দাবি করেছেন র‌্যাব-১ এর সদস্যরা।গ্রেফতাররা হলেন- ময়মনসিংহের কোতোয়ালি থানার মীরকান্দা পাড়া গ্রামের সাইদুল ইসলামের ছেলে শ্রীপুরের বেজঝুড়ি মহিলা মোড় মসজিদের ইমাম সারোয়ার হোসেন (২০) এবং একই জেলার হালুয়াঘাট থানার করুয়াপাড়া গ্রামের সাদেক আলীর ছেলে শ্রীপুরের বড়বাইদ আব্দুল হামিদ মাস্টার জামে মসজিদের ইমাম মো. এহসানুল হক (২৪)।



তাদের কাছ থেকে ১০টি উগ্রবাদী বই এবং উগ্রবাদী ২৩ পাতা লিফলেট উদ্ধার করা হয়।রোববার (১৮ অক্টোবর) ভোরে শ্রীপুর থানাধীন বারতোপা বাজার মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

র‌্যাব-১-এর গাজীপুরের কোম্পানি কমান্ডার লে. কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, নাশকতা ঘটানোর জন্য জঙ্গি সংগঠনের কতিপয় সক্রিয় সদস্য শ্রীপুর থানাধীন দক্ষিণ বারতোপা এলাকার বারতোপা বাজার মাওনা ইউনিয়ন পরিষদের মাঠে খোলা জায়গায় একত্রিত হয়ে পরামর্শ করছিল। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে ওই এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়।



র‌্যাবের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতাররা জানান, নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন হরকাতুল জিহাদ বাংলাদেশের সদস্য তারা। দীর্ঘদিন ধরে এই সংগঠনের জন্য কাজ করে আসছেন।



গাজীপুরে শ্রীপুরে বারতোপা নির্জন গহীন বনে তালেবানি প্রশিক্ষণ প্রদান করে আফগানিস্তান ও কাশ্মীরে ইসলামী খেলাফত প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে জিহাদের জন্য সহযোগীদের প্রেরণের পরিকল্পনা গ্রহণ, উগ্রবাদে বিশ্বাসী সহযোগীদের সহায়তায় ধর্মীয়ভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি বা ব্যক্তিদের হত্যা এবং প্রজাতন্ত্রের সম্পত্তির ক্ষয়ক্ষতি সাধনের জন্য রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মিটিং করার উদ্দেশ্যে ওই স্থানে অবস্থান করছিলেন তারা।

error: Content is protected !!