ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড করায় ছাত্রলীগের আনন্দ মিছিল

ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান করে মন্ত্রিসভায় সংশোধিত ‘নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন, ২০০০’ এর খসড়া চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে ও উক্ত সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ র‍্যালী ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।



মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিন থেকে র‌্যালীটি শুরু হয়ে ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে সন্ত্রাস বিরোধী রাজু ভাস্কর্যে এসে শেষ হয়।
এ সময় প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান এনে গতকাল মন্ত্রীসভায় আইন পাস হওয়ায় আমরা কৃতজ্ঞ। ধর্ষকদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ডের বিধান করার জন্য সবার আগে মাঠে নামে বাংলাদেশ ছাত্রলীগ। কিন্তু কিছু অসৎ নামসর্বস্ব ব্যক্তি, সংগঠন, ধর্ষকদের যারা সবসময় সাপোর্ট দেয়, তারা মিথ্যা বলে যে সিমপ্যাথি নেওয়ার চেষ্টা করেছে সেটা সবাই জেনেছে যে, এদের এজেন্ডা পাকিস্তানের এজেন্ডা। সুতরাং এই পাকিস্তানিদের কোন ভাবে বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করার সুযোগ দিবোনা।



এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন সহ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

error: Content is protected !!