ভারতের পর এবার পাকিস্তানেও নিষিদ্ধ হলো টিকটক

শুক্রবার (৯ অক্টোবর) টিকটক নিষিদ্ধের ঘোষণা দিয়েছে চীনের বন্ধুরাষ্ট্র পাকিস্তান। খবর রয়টার্সের।

নিরাপত্তা ও তথ্য চুরির অভিযোগে চীনা ভিডিও অ্যাপ টিকটক নিষিদ্ধ করেছিল ভারত। তবে পাকিস্তানে অ্যাপটি নিষিদ্ধ হওয়ার কারণ ভিন্ন।



অনৈতিক বিষয়বস্তুর জন্য টিকটক নিষিদ্ধের ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তান। দেশটির টেলিযোগাযোগ কর্তৃপক্ষ (পিটিএ) বলেছে, সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির পক্ষ থেকে ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপটির বিরুদ্ধে অনৈতিক ও অশ্লীল বিষয়বস্তু থাকার অভিযোগের প্রেক্ষিতে নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

পিটিএ আরও জানিয়েছে, টিকটক বেআইনি বিষয়বস্তু যাচাইয়ের মেকানিজম সন্তোষজনক করতে পারলে এই নিষেধাজ্ঞার সিদ্ধান্ত পর্যালোচনা করা হবে।

পিটিএ কর্মকর্তাদের দাবি, চূড়ান্ত সতর্কবার্তা দেওয়ার পরেও টিকটকে অশ্লীল পোস্ট বন্ধ হয়নি। তাই এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

গত জুলাই মাস থেকে পাকিস্তানে টিকটক নিয়ে আপত্তির শুরু হয়। ওই সময় অ্যাপটিতে অনৈতিক পোস্ট শেয়ার করা হচ্ছে বলে সতর্ক করেছিল পিটিএ। আপত্তিকর পোস্ট বন্ধ না হলে টিকটক নিষিদ্ধ করে দেওয়া হবে বলে জানানোও হয়েছিল।

এর আগে অনৈতিকতার প্রশ্ন ওঠায় লাইভ স্ট্রিমিং অ্যাপ ‘বিগো’ নিষিদ্ধ করেছিল পাকিস্তান।



এদিকে পাকিস্তানে নিষিদ্ধ হওয়ার ব্যাপারে টিকটক বলছে, যেসব স্থানে তাদের অ্যাপ সক্রিয় সেখানকার আইন মেনে চলার প্রতি আমরা শ্রদ্ধাশীল। আমরা নিয়মিত পিটিএর সঙ্গে যোগাযোগ রাখছি এবং কাজ করা চালিয়ে যাব। আমরা আশা করি একটি সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া যাবে যা দেশটির সৃজনশীল অনলাইন সম্প্রদায়কে আমরা সেবা দিয়ে যেতে পারব।

error: Content is protected !!