টাঙ্গাইলে এসিল্যান্ড ও তার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি

পূর্ব বাংলা সর্বহারা পার্টির পরিচয় দিয়ে টাঙ্গাইলের বাসাইল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ফজলে এলাহী ও তার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়া হয়েছে। এই ঘটনায় এসিল্যান্ড সোমবার (৫ অক্টোবর) বাসাইল থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন। মঙ্গলবার (৬ অক্টোবর) দুপুরে তিনি এ বিষয়টি জানিয়েছেন।



জানা যায়, সোমবার (৫ অক্টোবর) বিকেলে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ফজলে এলাহীকে তার ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরে সর্বহারা পার্টির প্রধান মহিউদ্দিনের পরিচয় দিয়ে ফোন করা হয়। বলা হয়- ‘আমি জনযুদ্ধ এম-এর প্রধান সিকদার মহিউদ্দিন বলছি। আমি এতদিন বাংলাদেশের বাইরে ছিলাম। চাঞ্চল্যকর পুলিশ মার্ডার মামলার মুখ্য আসামি আমি।



বেশ কিছুদিন থেকে বাংলাদেশে এসেছি। দলের হেড কমান্ডের নির্দেশে দেশে ফেরার পথে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের সঙ্গেও গুলাগুলি হয়। সেসময় আমাদের কয়েকজন কর্মী নিহত এবং কিছু আহত হয়। আহতদের চিকিৎসার জন্য আমাকে টাকা দিয়ে সাহায্য করতে হবে। এসিল্যান্ড মো. ফজলে এলাহী টাকা দিতে অসম্মতি জানালে মহিউদ্দিন বলেন- ‘এই এসিল্যান্ড, আপনি পুলিশকে জানান, ওরা যদি পারে আপনাকে সেভ করবে, তাহলে করুক। আর আামার নেতাকর্মীরা যদি পারে তোকে চ্যালেঞ্জ করে টাকা ওঠাবে। এই টাকার জন্য তুই তোর পরিবারকে হারাবি, আমি সেটা চাই না। আমি বলছি টাকা তোকে দিতেই হবে। টাকা না দিলে আমার পোলাপান তোর পরিবারকে নির্বংশ করতে বাধ্য হবে।বাসাইল উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মো. ফজলে এলাহী বলেন, ‘সর্বহারা পার্টির প্রধান সিকদার মহিউদ্দিন আমার ব্যক্তিগত মোবাইলে কল করে অনির্দিষ্ট পরিমাণের টাকা দাবি করেন।



টাকা দিতে অসম্মতি জানালে তিনি আমাকে ও আমার পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দেন। পরে এই ঘটনায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। আমি এখন আমার পরিবার নিয়ে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’বাসাইল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শামছুন নাহার স্বপ্না বলেন, ‘এই ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। এই ঘটনায় আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।’

বাসাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) হারুনুর রশিদ বলেন, ‘এই ঘটনায় সাধারণ জিডি হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে।’

(জনতার কন্ঠ২৪)

error: Content is protected !!