সুখে দুঃখে আমি সিংড়াবাসীর পাশে ছিলাম, আছি এবং আগামীতেও থাকবো—পলক

সাম্প্রতিক সময়ে আমার নির্বাচনী এলাকা নাটোর জেলার সিংড়া উপজেলায় শত বছরের ইতিহাসে ভয়াবহ বন্যার কবলে পড়েছে প্রাণপ্রিয় এলাকাবাসী!

আত্রাই নদীর পানি সবোর্চ্চ ১১৫ সেন্টিমিটার পর্যন্ত বিপদসীমার উপর দিয়ে প্রবাহিত হয়েছে। যা অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করেছে।



এতে করে পানির প্রবল স্রোতে আমার নির্বাচনী এলাকার তাজপুর ইউনিয়নের হিয়াতপুর এ বাঁধ ভেঙে গেছে।

আজ বিকেলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, উপজেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সকল সংগঠনের নেতাকর্মী এবং প্রশাসনের নেতৃবৃন্দের নিয়ে তাজপুর ইউনিয়নের ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ পরিদর্শন করেছি। ভাঙ্গনরোধে কাজ চলমান আছে। বাঁধটি ভেঙে যাওয়ায় সিংড়া উপজেলার সাথে আত্রাই উপজেলার যোগাযোগ সাময়িকভাবে বিচ্ছিন্ন আছে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড, সড়ক ও জনপথ বিভাগের কর্মকর্তা, স্থানীয় সরকার বিভাগ, উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাবৃন্দের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা চলনবিলের মানুষের পাশে আছেন এবং আগামীতেও থাকবেন।
বন্যা পরবর্তী সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ হতে দ্রুত সময়ের মধ্যে বাঁধটি মেরামত করে রাস্তাটি পুনরায় নির্মাণ করে দেওয়া হবে ইনশা আল্লাহ্।

সবাই দোয়া করবেন। মহান আল্লাহ যেন আমাদের এই মহা দুর্যোগ থেকে সবাইকে রক্ষা করেন।




আমরা যেন দ্রুতই এই দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে পারি।

সুখে দুঃখে আমি আমার প্রাণের সিংড়াবাসীর পাশে ছিলাম, আছি এবং আগামীতেও থাকবো ইনশাল্লাহ।

আমি বন্যা কবলিত এলাকার মানুষের পাশে থাকার জন্য সমাজের সামর্থ্যবান ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দের এগিয়ে আসার জন্য অনুরোধ জানাচ্ছি।

মহান আল্লাহ আমাদের এই ভয়াবহ বন্যা কবল থেকে মুক্ত হওয়ার তৌফিক দান করুন । আমিন।

(জুয়ায়েদ আহমেদ পলকের টাইমলাইন থেকে)

error: Content is protected !!