পুলিশ এসোসিয়েশনের সিনি. সহ-সভাপতি নির্বাচিত হলেন টাঙ্গাইলের ডিএ তায়েব

আরাফাত ইসলাম শুভ: বাংলাদেশ পুলিশ এসোসিয়েশন এর সিনিয়র সহ-সভাপতি নির্বাচিত হয়েছেন টাঙ্গাইলের মির্জাপুরের কৃতি সন্তান ও পুলিশ পরিদর্শক ডিএ তায়েব। পুলিশের এই উর্ধ্বতন কর্মকর্তার গ্রামের বাড়ি মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কী ইউনিয়নে। তিনি ওই ইউনিয়নের কাটরা গ্রামের মরহুম ডিএ গণি’র ছেলে। আগামী ১৪ নভেম্বর তাঁর জন্মদিন। পারিবারিক জীবনে তাঁর স্ত্রী ও এক কন্যা সন্তান রয়েছে।



তিনি একাধারে দেশের বরেণ্য চিত্রনায়ক, অভিনেতা, নির্মাতা, প্রযোজক এবং শিল্পী ঐক্যজোটের সভাপতি। শুরুতে ছোট পর্দায় অসংখ্য নাটক, টেলিফিল্ম ও ধারাবাহিক এবং পরবর্তীতে রুপালী পর্দায় বাংলা ছবিতে অভিনয় করে নন্দিত হয়েছেন ডিএ তায়েব। অভিনয়ের পাশাপাশি ‘ডিবি’, ‘লেডি গোয়েন্দা’ ধারাবাহিকসহ অসংখ্য জনপ্রিয় নাটক প্রযোজনা ও পরিচালনাতেও কৃতিত্ব দেখিয়েছেন গুণী এই অভিনেতা।
চিত্রনায়ক হিসেবে তিনি ঢালিউডের হার্ট থ্রব নায়িকা পরিমণী ও পপিকে নিয়ে ‘সোনাবন্ধু’ নামে একটি চলচ্চিত্র উপহার দিয়েছেন। এই চলচ্চিত্রের মাধ্যম বড় পর্দাতেও বাজিমাত করেছেন তিনি। এছাড়া তার আরেক বিখ্যাত চলচ্চিত্র নায়িকা মাহিয়া মাহি অভিনীত ‘অন্ধকার জগত’ বেশ দর্শক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। এবারের ঈদুল আযহায় মুক্তি পেয়েছে নায়িকা ববিকে নিয়ে ডিএ তায়েব অভিনীত ‘আমার মা’ নামের চলচ্চিত্রটি। এবার অপু বিশ্বাসকে নিয়ে ‘দেহ ঘড়ি’ নামের নতুন একটি সিনেমা করতে যাচ্ছেন জনপ্রিয় এই নায়ক।



সংস্কৃতি অঙ্গনে একজন সরল এবং সদয় মানুষ হিসেবে ডিএ তায়েবের পরিচিতি রয়েছে। সংস্কৃতি অঙ্গনের মানুষের জন্য গড়ে তুলেছেন শিল্পী ঐক্যজোট নামের একটি সংগঠন। যার মাধ্যমে দুস্থ ও অসহায় শিল্পীদের পাশাপাশি সাধারণ মানুষের সেবা করে যাচ্ছেন তিনি। এছাড়া সমাজসেবায় গড়ে তুলেছেন ডিএ তায়েব ফাউন্ডেশন নামের একটি সেবামূলক প্রতিষ্ঠান।
ডিএ তায়েব বলেন,’আমি যখন যে কাজটা করি তা খুব গুরুত্ব সহকারে এবং নিষ্ঠার সাথে পালন করি। আমি আমার আদর্শে থেকে নিজের পরিশ্রম দিয়ে কাজটা স্বার্থক করার চেষ্টা করি। আর ভবিষ্যতেও আমার সেই চেষ্টায় থাকবে। আমি আমার পরিশ্রমের প্রতিদান পেয়েছি, এই অর্জন আমার কাজের দ্বায়িত্বটা আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। আমি সকলের কাছে দোয়া প্রত্যাশী যেন সব সময় জনগণের জন্য আমার দ্বায়িত্ব ঠিক মতো পালন করে যেতে পারি।’



তিনি আরও বলেন, ‘বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি), পুলিশ কমিশনার এবং সকল সিনিয়র অফিসার স্যারদের দিক নির্দেশনায় এই দুই লক্ষ পুলিশ সদস্যকে যেন সৎ ও নিষ্ঠার সাথে পরিচালনার পথ দেখাতে পারি।’ উল্লেখ্য পুলিশ বাহিনীতে কৃতিত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ও সফলতার সাথে দায়িত্ব পালনের স্বীকৃতিস্বরুপ চারবার ‘মহাপুলিশ পরিদর্শক’ পদকে ভূষিত হয়েছেন তিনি।

error: Content is protected !!