চাঁদাবাজি মামলায় সখীপুর শ্রমিক লীগের সভাপতি সহ ৫ জন কারাগারে

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ২০১৯ সালের দায়ের করা চাঁদাবাজী মামলায় উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বাচ্চু সিকদারসহ ৫ জনকে জেলহাজতে পাঠিয়েছে আদালত।
বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টায় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালত সখীপুর এ ৭ আসামীর ৬ জন আত্মসমর্পণ করেন।
দুই পক্ষের আইনজীবির শুনানি শেষে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট নওরিন আক্তার তাদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।আটককৃতরা হচ্ছেন, উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের আবু বকরের ছেলে বাচ্চু সিকদার (৫৫), একই ওয়ার্ডের মৃত হুরমুজ আলীর ছেলে শামসুল হক (৫৪), তার ভাই রউফ সিকদার (৫০), আবুল হোসেনের ছেলে আবুল কাশেম (৪৫) এবং মৃত ইসমাইল সিকদারের ছেলে জেলহক সিকদার (৪৪) ।
জানা যায়, উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি মৃত পাঞ্জু সিকদারের ছেলে সামাদ সিকদার ২০১৯ সালে সখীপুর পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে তার ক্রয়কৃত জমিতে পাঁচতারা মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় নির্মাণকাজ শুরু করেন।
এ সময় উপজেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি বাচ্চু সিকদার ও তাদের লোকজন জোরপূর্বক দখল ও চাঁদাদাবি করেন।
পরে সামাদ সিকদার বাচ্চু সিকদারসহ ৭জনকে আসামি করে ৪৪৭,৪৪৮, ৩৮৫, ৩৮৬, ৫০৬/ ৩৪ ধারায় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালত সখীপুর এ মামলা করেন।
এ মামলায় ২৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১টায় এ মামলার ৭ আসামীর মধ্যে ৬ জন আত্মসমর্পণ করলে ৫ জনকে জেলহাজতে পাঠানো হয়।
বাদী পক্ষের আইনজীবি আনোয়ার হোসেন সখীপুরী এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
(টাঙ্গাইল সংবাদদাতা, ঘাটাইল ডট কম)/-

error: Content is protected !!