পচে যাওয়ায় ভারতীয় পেঁয়াজ ফেলে দিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা

(আতিক হাসান)ভারতীয় পেঁয়াজ ফেলে দিচ্ছেন ব্যবসায়ীরা

স্থলবন্দরগুলোয় দিনের পর দিন আটকে থাকায় পচে গেছে আগের এলসির বেশিরভাগ ভারতীয় পেঁয়াজ। আড়াই হাজার টাকার বস্তা বিক্রি হচ্ছে ১০০ টাকায়। এদিকে দিনভর বেনাপোল, হিলি, ভোমরা ও সোনামসজিদ স্থলবন্দরে ঢোকেনি পেঁয়াজবোঝাই ট্রাক।

নানা নাটকীয়তার পর আগের এলসিকৃত পেঁয়াজের কয়েকটি ভারতীয় ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করলেও, নতুন সঙ্কটে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। লাখ লাখ টাকার পেঁয়াজ আমদানি করলেও, গরমের মধ্যে বেশ কয়েকদিন বন্দরে আটকে থাকায় তার অধিকাংশই নষ্ট হয়ে গেছে। এতে মাথায় হাত ব্যবসায়ীদের।

নষ্ট হয়ে যাওয়া পেঁয়াজ অনেকে বাধ্য হয়ে ফেলে দিচ্ছেন, আবারো অনেকে নামমাত্র দামে বিক্রি করে দিচ্ছেন।

শনিবার হাতে গোনা কয়েকটি ট্রাক বাংলাদেশে ঢুকলেও, ছাড়পত্র না থাকায় আবারও জটিলতার মুখে পড়েছে আগের এলসিকৃত ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি।

ভারতীয় কাস্টমস কর্তৃপক্ষ জানায়, ভোমরা স্থলবন্দর থেকে রোববার কোনো পেঁয়াজ রফতানি করা হবে না।

একই অবস্থা সোনামসজিদ স্থলবন্দরেও। আগের এলসিকৃত পেয়াজ আমদানির অনুমতির পরও এমন টালবাহানায় ক্ষুব্ধ ব্যবসায়ীরা।

এদিকে, বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে আগের এলসিকৃত পেঁয়াজ বোঝাই কোনো ট্রাক বাংলাদেশে ঢোকেনি। ওপারে এখনো অপেক্ষায় রয়েছে ১৮ থেকে ২০টি ট্রাক।

এ অবস্থায় আমদানি অনিশ্চিত হয়ে পড়ায় ভারতের অভ্যন্তরীণ বাজারেই কম দামে পেঁয়াজ বিক্রি করে দিচ্ছেন আমদানিকারকরা।

সূত্র :সময় টিভি

error: Content is protected !!