ঘাটাইলে রাস্তার বেহাল দশা! সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগরদিঘীর চাররাস্তা মোড় থেকে দুইশত গজ পশ্চিমে সাগরদিঘী টু ঘাটাইল রাস্তা, চাররাস্তার মোড়ের দক্ষিনে সাগরদিঘী টু সখীপুর রাস্তা ও চাররাস্তা মোড়ের উত্তরে সাগরদিঘী টু মধুপুর রাস্তায়সহ স্থানীয় বাজারের চারদিকে গর্ত হয়ে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। দীর্ঘ দিন ধরে রাস্তার উপর জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হওয়ায় যোগাযোগের ক্ষেত্রে দুর্ভোগের শিকার হচ্ছেন এলাকাবাসি।

ঘাটাইলের সাগরদিঘী পুর্ব পাহাড় হিসাবে পরিচিত। যে পাড়ারে শতকরা ৮০ জন কৃষক লেবু, কলা, বেগুন, পেপে, মুলা, লাউ, কাচা মরিচ সহ বিভিন্ন প্রকার সবজির চাষ করেন। যেসব ফল ও সবজি প্রতিদিন বিক্রি করতে হয়। সেই সব সবজি বা ফল বিক্রি করা কষ্ট হচ্ছে রাস্তা ভেঙ্গে গর্ত ও জলাবদ্ধতা সৃষ্টির হওয়ার কারনে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, কোন যানবাহন বাজারে ঢুকতে পারে না। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে কৃষক ও ব্যবসায়ীরা।সরেজমিনে আরও জানা যায়, সাগরদিঘী চার রাস্তার মোড় থেকে দুইশ গজ পশ্চিমে ঘাটাইলে যাওয়ার রাস্তা ২ফুটের মত গর্ত হয়ে রাস্তার চার দিকে গর্ত হয়ে হাটু পানি জমে আছে। যে কোন সময় সেখানে ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। একই অবস্থা সাগরদিঘী থেকে সখীপুর ও মধুপুর যাওয়ার রাস্তা।

স্থানীয় সবজি ব্যবসায়ীরা জানান, টাঙ্গাইল-ঢাকা সহ বাংলাদেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে ব্যবসায়ীরা আমাদের এখানে আসতো নানা সবজি কিনতে। রাস্তা ভাঙ্গা থাকায় কারনে কোন গাড়ী বাজারে ঢুকতে পারে না। সে কারনে ব্যবসায়ীরা এখন এখানে তুলনামুলক কম আসছেন।

সাগরদিঘীর কৃষক আমের আলী জানান, রাস্তা ভাঙ্গা থাকার কারনে বাজারে কোন যানবাহন ঢুকতে পারে না। সে কারনে ব্যবসায়ীরাও আমাদের কোন সবজি বা ফল কিনতে আসে না। আমার একটা ২বিঘা জায়গা সবজি বাগান আছে। ফলন অনেক ভালো হইছে, কিন্তু সঠিক দামে বিক্রি করতে পারমু বলে মনে হয় না। এটি নিয়ে চিন্তায় আছি।

স্থানীয় পিকআপ চালক আমির হামজা জানান, বাজারে গাড়ী ঢুকানো কোনভাবেই সম্ভব না। চারদিকে রাস্তা গর্ত ও হাটু পানি। এতেকরে আমরা সহ এলাকার কৃষকগণ নানামুখী ক্ষতির সন্মুখিন হচ্ছেন। এখানে যেকোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরনের দুর্ঘটনা। এ রাস্তা খুব তাড়াতাড়ি মেরামত করার জন্য দাবি জানাচ্ছি।

(জাহাঙ্গির আলম, ঘাটাইল ডট কম)/

error: Content is protected !!