ভালুকায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ!

(জয়নুল আবেদীন) ভালুকা উপজেলার কাচিনা ইউনিয়নের বাটাজোড় গ্রামের মোঃ আরফানের মেয়ে মোছাঃ আফরিন আক্তার(১৭) কে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ফজলুল হকের ছেলে মোঃ তারেক আহমেদ(২০) এর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

২৭ আগস্ট তারেক আফরিনকে কোর্ট ম্যারেজ করে বিয়ে করবে বলে বাড়ি থেকে পালিয়ে নিয়ে যায় পার্শ্ববর্তী উপজেলা সখিপুর এবং তারা সেখানে একটি গেস্ট হাউজে উঠে। আফরিনকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে একটানা তিনতিন জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং অবশেষে আফরিনকে রেখে বিয়ের জন্য নিয়ে আসা ৯০ হাজার টাকা নিয়ে তারেক পালিয়ে যায়।

পরে আফরিন সেপ্টেম্বরের ২ তারিখ ভালুকা মডেল থানায় এনিয়ে উক্ত ঘটনার সহযোগী তারেকসহ ৪ জনকে আসামী করে একটি ধর্ষণ মামলা করে। যার প্রমাণ সরূপ মামলার কপি কমেন্ট বক্সে দেওয়া হল। ঘটনার পর থেকে তারেক সহ তার সহযোগী ৩ জন বন্ধু পলাতক।

আফরিন তার বক্তব্যে জানাই তারেক আমাকে বিয়ের কথা বলে বাড়ি নিয়ে জোড় পূর্বক আমাকে ধর্ষণ করে আমার সাথে থাকা ৯০ হাজার টাকা নিয়ে আমাকে ফেলে রেখে চলে যায়। এখন সে যদি আমাকে বিয়ে না করে তবে এ সমাজে আমি ধর্ষিতা হয়ে বেঁচে থাকাতে চাই না, আত্মহত্যা ছাড়া আমার আর কোন উপায় থাকবে না। আমি সকলের কাছে এর সুষ্ঠু বিচার চাই।

error: Content is protected !!