বন্ধুর দেয়া নম্বরে ২ বছর প্রেম করে জানলেন বোন! আদালতে বন্ধুকে ছুরিকাঘাত

বন্ধুর দেয়া নম্বরে প্রেম করে জানলেন বোন, আদালতে বন্ধুর বুকে ছুরিআটক রবিউল আলম বিজয়

নেত্রকোনায় আদালত প্রাঙ্গণে বন্ধুর ছুরিকাঘাতে বন্ধু আহত হয়েছেন। রোববার (০৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নেত্রকোনা জজ কোর্ট চত্বরে ছুরিকাঘাতের এ ঘটনা ঘটে।

গুরুতর আহত আজাহারুল ইসলামকে (২৫) প্রথমে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতাল এবং পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান চিকিৎসকরা। আহত আজাহারুল ইসলাম পূর্বধলা উপজেলার ভুগী গ্রামের বাসিন্দা। তিনি জমি-সংক্রান্ত মামলায় হাজিরা দিতে দুপুরে আদালতে এসেছিলেন।

আজাহারুলের বন্ধু রবিউল আলম বিজয় (২৩) নেত্রকোনা সদর উপজেলার হোসেনপুর গ্রামের আফতাব উদ্দিনের ছেলে।

ছুরিকাঘাতের ঘটনার পরপরই আদালত প্রাঙ্গণ থেকে রবিউলকে রক্তমাখা ছুরিসহ হাতেনাতে আটক করে পুলিশ।

তিনি এখন পুলিশ হেফাজতে রয়েছেন বলে জানান নেত্রকোনার (সদর সার্কেল) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোর্শেদা খাতুন।

আটকের সময় রবিউল আলম বিজয় বলেন, আমরা দুইজন বন্ধু। দুই বছর আগে এক মেয়ের মোবাইল নম্বর আমাকে দিয়েছিল আজাহারুল। ওই মোবাইল নম্বরের সূত্র ধরে মেয়েটির সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে আমার।



দীর্ঘদিন ওই মেয়ের জন্য অনেক অর্থ ও সময় নষ্ট হয়েছে। পরে জানতে পারলাম মেয়েটি আমার চাচাতো বোন। পূর্ব পরিকল্পনা করে আমাকে চাচাতো বোনের ফোন নম্বর দিয়েছিল আজাহারুল। তাদের দুইজনের যোগসাজশে আমার অর্থ ও জীবন নষ্ট হয়ে গেছে। এজন্য আজ বন্ধুকে ছুরিকাঘাত করেছি।

এ ব্যাপারে নেত্রকোনার (সদর সার্কেল) অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোর্শেদা খাতুন বলেন, রবিউলকে হাতেনাতে ছুরিসহ আটক করা হয়েছে। প্রেম সংক্রান্ত কারণে বন্ধুর বুকে ছুরি মেরেছে রবিউল। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

error: Content is protected !!