আজ রাতে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ফাইনালে মুখোমুখি পিএসজি–বায়ার্ন

রুদ্ধশ্বাস ম্যাচের প্রতীক্ষা। শক্তি আর গতির নৈপুণ্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ফাইনালে এবার ফ্রেঞ্চ জায়ান্ট পিএসজির সঙ্গে জার্মান জায়ান্ট বায়ার্ন মিউনিখ।

ফাইনাল শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রোববার দিবাগত রাত ১টায়(সোমবার প্রথম প্রহর)। বায়ার্নের হাই লাইন অ্যাটাক রুখে দেয়ার চ্যালেঞ্জ পিএসজির। অন্যদিকে নেইমার, এমবাপেও ত্রাস ছড়াবে বায়ার্ন শিবিরে এমনটাই আশা করছেন পিএসজি সমর্থকেরা।

কোন দল জিততে যাচ্ছে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ?

এ প্রশ্নটা সবারই! প্রথমবার ফাইনালে ওঠা পিএসজি?

নাকি ৫ বারের শিরোপা জয়ী বায়ার্ন মিউনিখ? সার্বিক পরিসংখ্যান কিংবা সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স এগিয়ে রাখছে বায়ার্নকে।

তবে চলতি আসরে ১০ ম্যাচ খেলে ৮ জয় পিএসজির। অন্যদিকে টানা ১০ ম্যাচ জিতে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে অনন্য রেকর্ড গড়েছে বায়ার্ন।

এবার আসুন গোল সংখ্যায়। সেখানেও ঢের এগিয়ে জার্মান জায়ান্টরা। পিএসজির ২৫ গোলের বিপরীতে বায়ার্নের গোল ৪২।

ফুটবলবিশ্বে মেসি-রোনালদোর পরের নামটি নেইমার। পূর্বসুরী দুজন এবার ব্যর্থ। তাদের দল ইউভেন্তাস আর বার্সেলোনা শিরোপার ধারে কাছেও আসতে পারেনি এবার। এখন পিএসজির হয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতলে হয়তো শুরু হবে নেইমারের রাজত্ব। বায়ার্ন বাধা টপকাতে নেইমারের সেরাটা তাই লাগবেই।নামের ভারে নেইমার, এমবাপেরা লেভানদস্কি বা গিনাব্রির চেয়ে এগিয়ে। কিন্তু বায়ার্ন খেলে দল হিসাবে। তারপরও আলাদাভাবে লেভানদস্কির কথা বলতে হবে।

(ইন্ডিপেন্ডেন্ট টিভি ডেস্ক)

error: Content is protected !!