স্রোতে বেরিয়ে এলো সাবমেরিন ক্যাবল! বিঘ্নিত হতে পারে ইন্টারনেট সেবা

নিরাপত্তার বিষয়টি জোড়ালো না হওয়ায় সাবমেরিন ল্যান্ডিং স্টেশনের অপটিক্যাল ফাইবার ক্যাবল এই দ্বিতীয় বারের মতো হুমকির মুখে পরেছে।

উত্তাল বঙ্গোপসাগরের অস্বাভাবিক জোয়ারের ঢেউয়ের ঝাপটায় পটুয়াখালীর কুয়াকাটায় মাটির নিচ থেকে বেরিয়ে এসেছে সমুদ্র থেকে উঠে আসা দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিন ল্যান্ডিং স্টেশনের হাইভোল্টেজ ডিসি পাওয়ারের সংযোগ ক্যাবল। কুয়াকাটা সমুদ্র সৈকতের জিরো পয়েন্টে বেরিয়ে আসা এ ক্যাবল যেকোনো অসাবধানতায় ক্ষতি সাধিত হলে বিচ্ছিন্ন হয়ে বন্ধ হতে পারে ল্যান্ডিং স্টেশনের সকল ধরনের সার্ভিস।

বৃহস্পতিবার (২০ আগস্ট) দুপুর ২টার দিকে ঢেউয়ের ঝাপটায় বালু ক্ষয়ের ফলে মাটির অগভীরে থাকা এ ক্যাবল বেরিয়ে আসে।

এদিকে দুপুরের পর থেকে স্থানীয় ভাবে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীরা ইন্টারনেট সার্ভিসের গতি খুবই কম পাওয়া যাচ্ছে।

এ নিয়ে নানা গুঞ্জন শেষ হতে না হতেই সমুদ্র সৈকতের বালুর ওপরে দেখা মেলে সাব মেরিন ল্যান্ডিং স্টেশনের ইন্টারনেট ক্যাবলের।

এব্যাপারে দ্বিতীয় সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের উপমহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. তরিকুল ইসলাম বলেন, সমুদ্রের অস্বাবাবিক ঢেউ এবং স্রোতের কারণে কুয়াকাটা সৈকতের অস্বাভাবিক বালু ক্ষয় হয়েছে। এমনকি বালু ক্ষয়ের কারণে বহু গাছ পালা সৈকতে উপড়ে পরেছে। বালু সড়ে যাওয়ায় ইন্টারনেট বেন্ডউইথ-এর সঞ্চালন প্রটেকশন ক্যাবল বের হয়ে গেছে।

তিনি আরো বলেন, সমুদ্রের জোয়ারের পানি হ্রাস পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ট্যুরিস্ট পুলিশের সহায়তায় বের হওয়া ১০ থেকে ২০ ফুট ক্যাবল এলাকা সর্বোচ্চ নিরাপত্তার বেষ্টনীতে আবদ্ধ করেছি। ২০ ঘণ্টা পাহারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। শুক্রবার সাগরে ভাটার সময় যথাযথভাবে ক্যাবল রক্ষার কার্যক্রম শুরু হবে।

(সাইবার ৭১)

error: Content is protected !!