২-১ গোলের কষ্টার্জিত জয়ে ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়ন্স লীগের সেমিফাইনালে পিএসজি

ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমি ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে প্যারিস সেন্ট জার্মেই (পিএসজি)।

খেলার শেষ মিনিট পর্যন্ত এগিয়ে ছিল আটালান্টা। গড়তে চলেছিল ইতিহাস।

এই মুহূর্তে তাদের স্বপ্ন ভঙ্গ করে দেন মার্কিনিয়োস।

নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে গোল করে পিএসজিকে সমতায় ফেরান তিনি।খেলার শেষ তিন মিনিটে চমক দেখিয়ে আটালান্টাকে ২-১ গোলে হারিয়ে ইতিহাস গড়ল ফরাসি এই ক্লাব।

খেলার শুরুতেই গোলের সুযোগ পায় পিএসজি। তবে বল প্রথমে জালে পাঠাতে সক্ষম হয় আটালন্টা। খেলার ২৬তম মিনিটে আটালন্টার মিডফিল্ডার মারিও পাসালিচ প্রথম সুযোগটা কাজে লাগান।

এর দুই মিনিট পরই সুযোগ পান নেইমার। তবে ২০ গজ দূর থেকে তার জোরালো শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়।

১-০ তে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় আটালান্টা। এদিকে বিরতির পর বেশ কয়েকটি সুযোগ নষ্ট হয় পিএসজির। বদলি নামা এমবাপের ৭৩তম মিনিটের শট গোলরক্ষকের পায়ে প্রতিহত হয়। ৮০তম মিনিটে শট নিতে দেরি করে আরেকটি সুযোগ হারান তিনি।

আটালান্টার স্বপ্ন শেষ মুহূর্তে ভেঙে দেন মার্কিনিয়োস।

৯০তম মিনিটে চুপো-মোটিংয়ের ক্রস থেকে ডি-বক্সে বল পেয়ে যান তিনি। এরপর বল জালে পাঠাতে কোনো ভুল হয়নি ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারের। আর অতিরিক্ত সময়ের তৃতীয় মিনিটে গোল করে দলকে উচ্ছ্বাসে ভাসান চুপো-মোটিং।

আর এতেই ২-১ গোলের কষ্টার্জিত জয়ে ইতিহাস গড়ে চ্যাম্পিয়নস লীগের সেমিফাইনালে পিএসজি।

সর্বোচ্চ ৯.৪ রেটিং নিয়ে ম্যাচসেরা প্লেয়ার নির্বাচিত হয়েছেন ব্রাজিলিয়ান সুপারস্টার নেইমার।

error: Content is protected !!