নৌকায় নর্তকী নিয়ে যুবকদের অশ্লীল নৃত্য, আটক ১৫

চলনবিলে নৌকায় নর্তকী নিয়ে অশ্লীল নৃত্য করার সময় ১৫ জনকে আটক করা হয়েছে। সোমবার (১০ আগস্ট) দিবাগত রাতে নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার বিলশা এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

মঙ্গলবার (১১ আগস্ট) বিকেলে আটকদের আদালতের মাধ্যমে নাটোর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।গুরুদাসপুর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মোজাহারুল ইসলাম জানান, চলনবিল এলাকায় প্রতিদিন নৌকায় উচ্চস্বরে গান-বাজনা ও মেয়েদের দিয়ে অশ্লীল নৃত্য পরিবেশন করা হয়। আটকদের নামে মামলা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে তাদের নাটোর কারাগারে পাঠানো হয়েছে।আটকরা হলেন- সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের নাদোসৈয়দপুর গ্রামের রজব আলীর ছেলে আলীফ (৩৫), আহসানের ছেলে ফরহাদ (২৪), আত্তাবের ছেলে সুজন (২৯), সাইদুরের ছেলে নাজমুল হক (২২), মৃত আমজাদের ছেলে আমিরুল ইসলাম (২২), রবিউল শেখের ছেলে নয়ন (২৩), গুল মামুদের ছেলে সাদ্দাম হোসেন (৩২), মৃত এলাহী মন্ডলের ছেলে মিজানুর রহমান (২৬), আব্দুস সোবহানের ছেলে হাসিনুর রহমান (২৩), চরকুশাবাড়ী গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে আলামিন (২২), চরহামকুড়ি গ্রামের মুক্তার হোসেনের ছেলে শাহিন (২৩), বসুদেব মন্ডলের ছেলে শ্রী মিলন কুমার (৩৫), বগুড়ার শেরপুর উপজেলার উত্তর সাহাপাড়া এলাকার আব্দুল লতিফের ছেলে মিনারুল ইসলাম (২৫), আবু বক্কর সিদ্দিকের মেয়ে মনিরা (২২) ও মিনারুল ইসলামের স্ত্রী বিউটি (২৫)।

এ বিষয়ে তাড়াশ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহবুবুল আলম বলেন, চলনবিলের তাড়াশ অংশ কড়া নজরদারিতে রয়েছে। এসব এলাকায় কোনোভাবেই অসামাজিক কর্মকাণ্ড করতে দেয়া হবে না।

error: Content is protected !!