টাঙ্গাইলে বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে! আহত ৩০

টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ-জামালপুর মহাসড়কের টাঙ্গাইলের কালিহাতির মুলিয়া নামক স্থানে রবিবার (২৬ জুলাই) দুপুরে পার্শ্বরাস্তা না থাকার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পার্শ্ববর্তী খাদে বন্যার পানিতে পড়ে যায়।
এ ঘটনায় কোন প্রাণহানীর ঘটনা না ঘটলেও অন্তত ত্রিশ জন যাত্রী আহত হয়।

আহতদের মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া যায়। তারা হলেন ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা উপজেলার পারইতলা গ্রামের আঃ হকের মেয়ে রহিমা খাতুন (৩০), অপরজন হলেন টাঙ্গাইলের ধনবাড়ি উপজেলার খিলপাড়া গ্রামের ফজলুল হকের ছেলে আরিফুল (১৮)।
অপরদিকে দুপুর দেড়টা থেকে বিকাল সাড়ে চারটা পর্যন্ত দুর্ঘটনায় কবলিত বাসটিকে উদ্ধার কাজের সময় টাঙ্গাইল-ময়মনসিংহ-জামালপুর মহাসড়কের এলেঙ্গা থেকে বাংড়া পর্যন্ত সাত কিলোমিটার যানজটের তৈরী হয়। এসময় ভোগান্তিতে পড়েন যাত্রীরা।
প্রান্তিক পরিবহনের যাত্রী ফারুক বলেন, ধীরগতিতে সড়কের মেরামত ও প্রশস্তকরণ কাজ চলায় ও একপাশ বন্ধ থাকায় এবং সড়কটির কোন পার্শ্বরাস্তা না থাকার বাসটি সাইড দিতে গিয়ে খাদে পড়ে যায়।
আর আমরা যাত্রীরা শিশু সন্তানসহ দুর্ভোগে পড়েছি বলে তিনি জানান।

কালিহাতি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স স্টেশনের স্টেশন অফিসার মঞ্জুরুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে আমরা দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে আহতদের উদ্ধার করি। এতে অন্তত ত্রিশজন যাত্রী আহত হন, তাদেও মধ্যে দুজনের পরিচয় পাওয়া যায়।
কালিহাতি থানার ওসি হাসান আল-মামুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে রেকার এনে বাসটিকে খাদ থেকে উঠানো হয় ও ফায়ার সার্ভিসের সহায়তায় আহতদের উদ্ধার করা হয়।
(এম এম হেলাল, ঘাটাইল ডট কম)/-

error: Content is protected !!