করোনার নমুনা দিলেই ৩০০ ডলার দেবে অস্ট্রেলিয়া

করোনাভাইরাসের প্রকোপ দিন দিন বেড়েই চলেছে অস্ট্রেলিয়ায় । বাড়ছে আক্রান্ত এবং মৃতের সংখ্যা। দেশটির ভিক্টোরিয়া রাজ্যে কোন ভাবেই কমানো যাচ্ছে না আক্রান্তের সংখ্যা এবং মৃত্যুর সংখ্যা।

রাজ্যের প্রধান ড্যানিয়েল অ্যান্ড্রুস নতুন করে এই সংক্রমণ ঠেকাতে বেশি বেশি টেস্ট করানোর দিকে জোর দিচ্ছেন। আর এই সংক্রমণ ঠেকাতে বিশেষ ধরণের সেবা চালু করেছেন।

এর মধ্যে রাজ্যটিতে নতুন করে ৪০৩ জন শনাক্ত ও ৫ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।

বৃহস্পতিবার দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, ভিক্টোরিয়ার বাসিন্দারা করোনা টেস্ট করালে ৩০০ অস্ট্রেলিয়ান ডলার করে দেয়া হবে। আর টেস্ট করানোর পর ফলাফল যদি পজিটিভ আসে তাহলে পাবেন ১৫০০ ডলার। আর টেস্টের ফলাফল না আসা পর্যন্ত তাদেরকে থাকতে হবে আইসোলেশনে। এ সব অর্থ দিবে সরকারের তহবিল থেকে।

রাজ্য প্রধান ড্যানিয়েল দাবি করেন, মানুষজন উপসর্গ নিয়ে কর্মস্থলে যাচ্ছেন। আবার অনেকে পরীক্ষা করলেও অপেক্ষা করছে না ফলাফলের জন্য। এতে করে করোনা ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

তিনি আরও দাবি করেন, বেশিরভাগ মানুষ করোনা টেস্টের ফলাফল পাওয়ার আগ পর্যন্ত আইসোলেশনে বাড়িতে থাকছেন না। তারা শপিং বা তাদের কর্মক্ষেত্রে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন আরও বলেন, নাগরিকদের ৩০০ ডলার পেতে হলে টেস্ট পরবর্তী আইসোলেশনে থাকতে হবে। এই অর্থ পরিশোধের জন্য আবেদন করা খুবই সহজ। তবে আইসোলেশনে না থাকলে কোনোভাবেই পাওয়া যাবেনা এই অর্থ।

তবে এই অর্থ পেতে হলে সরকারের কাছে বেতন স্লিপ দেখাতে হবে নয়তো এই অর্থ পাবেন না। তবে বেতন স্লিপ তাৎক্ষণিক দেখাতে না পারলে তাদের জন্য বিধিবদ্ধ ঘোষণা প্রয়োজন বলে তিনি উল্লেখ করেছেন। ড্যানিয়েল মনে করেন, সংক্রমণ ঠেকাতে এই পদ্ধতি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

ড্যানিয়েল আরও বলেন, আইশোলেশনে থাকা অবস্থায় যদি কারো ফলাফল পজিটিভ আসে সে ক্ষেত্রে ১৫০০ ডলার পাবেন। করোনাকালীন সময়ে এ অর্থ তাদের পরিবারের জন্য অনেক উপকার হবে বলেও তিনি জানান

error: Content is protected !!