টাঙ্গাইলে ঘুড়ি উড়াতে গিয়ে বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে স্কুলছাত্রের মৃত্যু

টাঙ্গাইলে দেলদুয়ার উপজেলাধীন আটিয়া ইউনিয়নের হিংগা নগর
(বড়বাড়ী) গ্রামের সােহেল রানার ছেলে- মােঃ সজীব(১৪) চং ঘুড়ি উড়ানাের সময় গাছের উপর তার চং ঘুড়িটি আটকে যায়। একপর্যায়ে গাছে আটকে যাওয়া চং ঘুড়িটি
উদ্ধারের জন্য সজীব গাছে উঠে, অতঃপর কাঁচা বাঁশ দিয়ে
চং ঘুড়িটি উদ্ধার করতে গিয়ে নিকটবর্তী চলমান বিদ্যুৎ লাইনের সংস্পর্শে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গাছের উপরেই মৃত্যু হয় এই কিশােরের।

স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসীরা জানান, (৫জুন)
রবিবার সজীব ঘুড়ি উড়ানাের সময় হঠাৎ একটা গাছে
আটকে যায় তার উড়ন্ত চং ঘুড়িটি, আনুমানিক সন্ধ্যা
৬:৪০মিনিটে সজীব গাছে উঠে আটকে পরা চুং ঘুড়িটি
কাঁচা বাঁশ দিয়ে উদ্ধারের চেষ্টা করলে গাছের নিকটবর্তী
চলমান পল্লী বিদ্যুতের তারের স্পর্শে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে
গাছের উপরেই মৃত্যু হয় তার। তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি
দেলদুয়ার পল্লী বিদ্যুৎ কে অবহিত করলে ওই বিদ্যুৎ
লাইনের বিদ্যুৎ সংযােগ বিচ্ছিন্ন করা হয় এবং এলাকাবাসী ও পল্লী বিদ্যুতের কর্মীদের সহযােগিতায়
পরবর্তীতে গাছের উপর আটকে থাকা কিশােরের মৃত দেহ উদ্ধার করা হয়।
মৃত সজীব স্থানীয় এম.এ করিম উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্র।
দেলদুয়ার উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান- ইন্জিনিয়ার মাহমুদুল হাসান মারুফের সাথে মুঠোফোনে যােগাযােগকরলে এ ঘটনাটির সত্যতা স্বীকার করে তিনি শােক প্রকাশ করেন।

error: Content is protected !!