রোজা রেখে গরীব কৃষকের ৫৬ শতাংশের ধান কেটে বাড়ি পৌঁছে দিল সখীপুর উপজেলা ছাত্রলীগ

সারাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত/মৃতের সংখ্যা আশংকাজনক ভাবে বেড়েই চলেছে।

ঠিক এই সময়ে সখীপুর উপজেলা ছাত্রলীগ দাঁড়িয়েছে উপজেলার অসহায় ও দরিদ্র কৃষকদের পাশে। উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়নের বোয়ালী মধ্যপাড়া এলাকায় এক অসহায় গরীব কৃষকের ৫৬ শতাংশ জমির ধান কেটে বাড়ি পৌছে দেন ছাত্রলীগের সদস্যরা ।

এটি তাদের ধান কাটা কর্মসূচির ২য় ধাপ। এর আগে উপজেলার কাকড়াজান ইউনিয়নে এক গরীব কৃষকের ৫০ শতাংশ জমির ধান কেটে দেয় তারা।

ছাত্রলীগ সভাপতি মির্জা শরীফ টাঙ্গাইল নিউজ টোয়েন্টিফোর কে জানান ছাত্রলীগের প্রত্যেকটা কর্মী ফজরের নামাজ শেষে রোজা থাকা অবস্থায় এক বিঘা জমির ধান কেটে বাড়ি পৌছে দিতে পেরেছি। এতে আমাদের খুবই ভালো লাগছে। এ সময় তিনি সকলের নিকট দোয়া প্রত্যাশা করে বলেন, আপনাদের দোয়া ও ভালোবাসা নিয়ে সখীপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সকল জনগণের দুঃখকষ্ট লাঘবে কাজ করে যাচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও করবে।

সাধারণ সম্পাদক রাসেল আল মামুন বলেন, শুধু ধান কাটা কেন বাংলার অসহায় হতদরিদ্র মানুষের সাথে মিশে তাদের দুঃখে দুঃখী হতে চাই। সখীপুর উপজেলা ছাত্রলীগ সবসময় অসহায় মানুষের পাশে ছিল,আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।
উপজেলার যাদবপুর ইউনিয়নের বোয়ালী মধ্যপাড়া গ্রামের গরীব কৃষক শহিদুল ইসলাম বলেন ধান পেকে কাটার অবস্থায় পৌছালেও অর্থ সংকটে দিন কাটাচ্ছিলাম। ছাত্রলীগের ভাইয়েরা আমার ক্ষেতে ধান কেটে বাড়িতে পৌছে দিয়েছে। আল্লাহ ওনাগো মঙ্গল করুন।

error: Content is protected !!